৪র্থদিনে ঢাকা-পাবনা বাস ধর্মঘট, কথা শুনছে না শাহজাদপুরের শ্রমিকরা

বার্তা সংস্থা পিপ (পাবনা) : ঢাকা-পাবনা বাস ধর্মঘট তৃতীয় দিন অতিবাহিত হয়ে ৪র্থদিনে গড়াল।। ধর্মঘটের ফলে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌছুছে। তবে বিকল্প রাস্তা দিয়ে কিছু বাস চলাচল করছে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার রাতে এবং শনিবার সকালে পাবনার বাস মালিক ও শ্রমিকরা দফায় দফায় বৈঠক করেন। তবে কোন সিদ্ধান্ত ছাড়াই সভা শেষ হয়। ঢাকা-পাবনা বাস ধর্মঘট পরিস্থিতিতে রোববার দুপুরে পাবনা প্রেসক্লাবে যৌথভাবে এক সংবাদ সম্মেলন আহবান করেছে পাবনা জেলা মোটর মালিক গ্রুপ ও পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়ন।

পাবনার শ্রমিকদের মারধর এবং সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরের উপর দিয়ে যানবাহন চলাচলে বাধা দেওয়ার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার রাত থেকে পাবনা থেকে ঢাকাগামী সকল প্রকার বাস চলাচল অনিদিষ্টকালেরর জন্য বন্ধ ঘোষণা করে পাবনা বাস মালিক-শ্রমিক সংগঠন। এদিকে আকস্মিকভাবে ঢাকার বাস বন্ধ করে দেওয়ায় চরম র্দুভোগে পড়েন যাত্রীরা।

পাবনা জেলা মোটর মালিক গ্রুপ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরের বাস শ্রমিকরা দীর্ঘদিন ধরে পাবনার কোচ ও বাস ড্রাইভার দের মাঝে মধ্যেই বিনা কারণে মারধর করে থাকে। পাবনার মালিক শ্রমিকরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এর প্রতিকার চেয়ে কোন ফল পায়নি। আমরা এর স্থায়ী সমাধান চাই। তাই আজ সাংবাদিক সম্মেলনে আরো বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেওয়া হতে পারে।

পাবনা জেলা মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি ফিরোজ খান জানান, আমরা কয়েকবার বৈঠকে বসেছি। কিন্তু শাহজাদপুরের শ্রমিকরা কিছুতেই কথা শুনছে না। এ ঘটনার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ঢাকাগামী সকল প্রকার বাস চলাচল বন্ধ থাকবে।

পাবনার জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ জানান, সিরাজগঞ্জ এবং পাবনার মালিক ও শ্রমিকরা নিজেরাই আলোচনা করছেন। তারা ব্যর্থ হলে প্রশাসন পরিবহন ধর্মঘট নিরসনে কাজ শুরু করবে।