২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে পাবনায় যুবলীগের বিক্ষোভ ও সমাবেশ

২১ আগস্ট আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে পাবনা জেলা আওয়ামী যুবলীগ।

রবিবার (২১ আগস্ট) বিকেলে পাবনা শহরের আব্দুল হামিদ রোডস্থ জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এই বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

পাবনা পৌরসভার সাবেক মেয়র আওয়ামী লীগ নেতা কামরুল হাসান মিন্টুর নেতৃত্বে মিছিলে অংশ নেন জেলা যুবলীগের আহবায়ক আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি, যুগ্ম-আহবায়ক শিবলী সাদিক, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ খান, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, যুবলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমুখ।

এদিন বিকেল ৫টার দিকে খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে জড়ো হোন। পরে সেখান থেকে বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করে নেতাকর্মীরা। মিছিলটি বাণীবিণা হল মোড়, চার মাথা মোড়, বড় বাজার, চাপা মসজিদ হয়ে আব্দুল হামিদ রোডসহ প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে আবার জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মাধ্যমে বাংলাদেশের স্বাধীন ও সার্বভৌমত্ব ধ্বংস করতে চেয়েছিল। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় এই হামলা হয়। মুলত সেদিন মূল লক্ষ্য ছিলেন জাতীয় সংসদের তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা, আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আজকের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জিয়ার রহমানের কুপত্র তারেক রহমান এই হামলার মাস্টারমাইন্ড।’

তারা আরও বলেন, ‘ বাংলাদেশের স্বাধীনতার জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যার মাধ্যমে মুক্তিযুদ্ধে নেতৃত্বদানকারী আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করা। কিন্তু ঘাতক বিএনপি-জামায়াতের সেই আশা পূরণ হয়নি।’

error: কাজ হবি নানে ভাই। কপি-টপি বন্ধ