১৮ বছর পর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন

একাধিকবার সম্মেলনের দিন-তারিখ নির্ধারণ ও তা স্থগিতের পর দেড়যুগ দীর্ঘ ১৮ বছর পরে আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি পাবনার চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

ইতোমধ্যে সম্মেলনের প্রস্তুতি কমিটি গঠণ, কাউন্সিলদের তালিকা চূড়ান্ত করাসহ গত ১৩ ফেব্রুয়ারি বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০০৩ সালে চাটমোহর ডিগগ্রী কলেজ মাঠে সর্বশেষ আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

আওয়ামী লীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক আঃ জলিল ওই সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন। সেই সম্মেলনে এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন সাখো সভাপতি ও মোঃ আঃ মালেক সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। কিন্তু দীর্ঘ দেড় যুগ অতিবাহিত হলেও চাটমোহর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়নি। আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি সম্মেলনের নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম জানান, ২০০৩ সালে সর্বশেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ২৩ ফেব্রুয়ারি স্থানীয় বালুচর খেলার মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান এই নেতা।

এদিকে সম্মেলনকে ঘিরে নতুন নেতৃত্বের আভাস পাওয়া যাচ্ছে। সভাপতি পদে বর্তমান সভাপতি ও চাটমোহর পৌরসভার মেয়র এ্যাড. সাখাওয়াত হোসেন সাখো আবারো সভাপতি হচ্ছেন-এমনটা নিশ্চিত। কারণ সভাপতি পদে প্রার্থী ছিলেন সাবেক পৌর মেয়র মির্জা রেজাউল করিম দুলাল। বিগত পৌর নির্বাচনে তিনি বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় জেলা আওয়ামী লীগ তাকে দল থেকে অব্যাহতি দিয়েছে।

সাধারণ সম্পাদক পদে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান ইছাহক আলী মানিক, ছাইকোলা ইউপি চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম, হরিপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মকবুল হোসেন, মূলগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম বকুল, নিমাইচড়া ইউপি চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান খোকন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ-কমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক, পাবনা জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ হেলাল উদ্দিনের নাম শোনা যাচ্ছে।

উপজেলার ১১টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভার ৩১জন করে কাউন্সিলর চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে দলীয় সূত্র জানায়।

>> পাবনার নিয়মিত ভিডিও পেতে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল আইকনটি চালু করুন। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন