‘হত্যা করে সাংবাদিকদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে’

‘স্বাধীন বাংলাদেশে এ পর্যন্ত যতো সাংবাদিকদের হত্যা করা হয়েছে তার একটিরও বিচার হয়নি। এজন্য দুষ্কৃতকারীরা বার বার সাংবাদিকদের হত্যা করতে সাহস পায়। সাংবাদিকদের হত্যার বিচার না হওয়ার আরেকটি কারণ ঐক্য। আমাদের সাংবাদিকদের মাঝে ঐক্যের অভাব রয়েছে। সাংবাদিকদরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে মাঠে নামলে তবেই এসব হত্যাকাণ্ডের বিচার হবে। এজন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।’

ডিবিসি নিউজের প্রযোজক আব্দুল বারীকে হত্যার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার (৯ জুন) দুপুরে পাবনা প্রেসক্লাবের সামনে শহরের অব্দুল হামিদ সড়কে মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তারা এসব কথা বলেন।

ঘন্টাব্যাপী এই কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, প্রবীণ সাংবাদিক আব্দুল মতিন খান, মাছরাঙা টিভির ব্যুরো চীফ উৎপল মির্জা, আব্দুল হামিদ খান, রেডিও বাংলাদেশ পাবনা সংবাদদাতা সুশিল তরফদার, বীরমুক্তিয়োদ্ধা আব্দুল জব্বার, নরেশ মধু, সংবাদপত্র পরিষদের সম্পাদক শহীদুর রহমান, রিপোটার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক কাজী বাবলা।

আব্দুল বারীর দ্রুত বিচার দাবি করে বক্তারা বলেন, ‘দুঃখজনক ব্যাপার হলো- কোন সরকারের আমলেই সাংবাদিকরা হত্যার বিচার পাইনি। যখন কোনও সাংবাদিক হত্যার ঘটনা ঘটে। তখন আমরা কেউ কেউ মাঠে নামি, প্রতিবাদ করি, আবার একটি ঘটনা ঘটলে সেই ঘটনাটি ধামা চাপা পড়ে যায়। যখনই কোনও অপরাধীর বিষয়ে সংবাদ পরিবেশন করা হয়, তখনই তারা পরিকল্পিত ভাবে সাংবাদিকদের হত্যা করছে, যেন তাদের কন্ঠরোধ করা যায়।’

তারা আরও বলেন, একদিকে সাংবাদিক হত্যার মধ্যদিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের কন্ঠরোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। অপরদিকে সাংবাদিক নামধরীরা সাংবাদিকতার নাম ভাঙিয়ে বিভিন্ন অপকর্ম করে মূলধারা এই পবিত্র দায়িত্বশীল পেশাকে কুলশিত করা চক্রান্ত করছে। তাই সময় এসেছে এখন সাংবাদিক প্রযোজক বারী হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির মধ্যদিয়ে সকল অপশক্তি, সন্ত্রাসী ও খুনিদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার।’

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সিনসার সম্পাদক এস এম মাহাবুব, বাসসের রফিকুল ইসলাম সুইট, আরটিভির আবুল কালাম, ফটো সাংবাদিক এস এম আলম, এসএ টিভির কলিট তালুকদার, একাত্তর টিভির মুস্তাফিজুর রহমান, ডিবিসি টিভির পার্থ হাসান, জিটিভির ইমরোজ খন্দকার বাপ্পি, সাংবাদিক পাভেল মৃধা, যায়যায়দিনের আরিফ সিদ্দিকী, পাবনার খবরের মনিরুজ্জামান শিপন, প্রতিদিনির সংবাদের খালেকুজ্জামান পান্নু, এশিয়ান টিভির ফজলুল হক, পাবনা বার্তা ২৪ ডটমকের শামসুল আলম, ঢাকা পোস্টের রাকিব হাসনাত প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুন (বুধবার) রাজধানীর নিকেতনের কাছে হাতিরঝিল থেকে ডিবিসি নিউজের প্রযোজক আব্দুল বারীর ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গলাকেটে নৃশংসভাবে হত্যা করা হয় তাকে। পূর্বশত্রুতার জের ধরে এই হত্যাকাণ্ড হতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে পুলিশ।