স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ পাবনার ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ

বিশ্বে প্রানঘাতি মহামারী করোনা ভাইরাস এর প্রভাব যখন বাংলাদেশে তখন সারাদেশকে লক ডাউন করে দেওয়া হয়। এমতাবস্থায় সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন দৈনিক দিন মজুর, নিম্ন মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত পরিবার। খাবার কষ্ট দুরিকরনে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন সরকার, বিভিন্ন সেচ্ছাসেবী সংগঠন ও ব্যাক্তি পর্যায়ের কিছু মানুষ।

পাবনায় কোভিড-১৯ বা নভেল করোনা ভাইরাসের প্রভাবে কর্মহীন হয়ে পরা দুস্থ মানুষদের মাঝে ত্রান বিতরন করেন স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ পাবনা জেলা শাখার ডাক্তার বৃন্দ। পাবনা সদর উপজেলাসহ ঈশ্বরদী, চাটমোহরের ৪ শতাধিক দুস্থ পরিবারে মাঝে ত্রাণ সামগ্রী (চাল, ডাল, তেল, আটা ও ঔষধ) বিতরণ করা হয়।

সোমবার দুপুরে পাবনা সদর উপজেলার বাংলাবাজার পশ্চিমপাড়া ডা. সিরাজুল ইসলাম এর বাসায় পার্শবর্তী ১৫০ দুস্থ পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করা হয়।

ত্রান বিতরণ কালে উপস্থিত ছিলেন পাবনা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোঃ মেহেদী ইকবাল। স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ পাবনা জেলা শাখার সভাপতি ডা. গুলজার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক ডা. জাহেদী হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক ডা. মো. নাজমুল ইসলাম, পাবনা মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি ডা. মাহফুজুর রহমান নয়ন, ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. মো. ইউনুস আলী=, আলহাজ সোহরাব হোসেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. মোশারফ হোসেন। অত্র এলাকার ইমাম ও সাদিপুর আলিম মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুল হামিদ- প্রমুখ ।

করোনা ভাইরাস প্রসঙ্গে পাবনা জেলা সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ মেহেদী ইকবাল বলেন, করোনা কোভিড -১৯ প্রতিরোধে স্বাস্থ্য কর্মীরা (চিকিৎসক, নার্স সহ সকল পর্যায়ের কর্মী) ঝুঁকি নিয়ে সেবা প্রদান করে যাচ্ছেন। ইতোমধ্যে একাধিক চিকিৎসক, নার্স কোভিড -১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন। ভয় পাবেন না। স্বাস্থ্য বিধিগুলো মেনে চলুন। ঘরে থাকুন। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন। সাবান দিয়ে হাত না ধূয়ে নাক, মুখ, চোখ স্পর্শ করা থেকে বিরত থাকুন। চিকিৎসক সহ সকল স্বাস্থ্যকর্মী আপনাদের পাশে আছে। আপনারাও চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে চলুন।

-বিজ্ঞপ্তি