সুখবর! অবশেষে পাবনায় পিসিআর ল্যাব স্থাপন হতে চলেছে

বার্তা সংস্থা পিপ (পাবনা) : দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের পরিপ্রেক্ষিতে অবশেষে পাবনায় পিসিআর ল্যাব স্থাপন হতে চলেছে। এ জন্য পাবনার বিভিন্ন সংগঠন সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সুত্র জানায়, কোভিড -১৯ মহামারীর থেকে দেশের প্রান্তিক মানুষকে বাঁচাতে সরকার পাবনা মেডিকেল কলেজে একটি পিসিআর স্থাপনের নীতিগত সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু এর আনুসঙ্গিক গুরুত্বপুর্ন যন্ত্রাংশ ”বায়োসেফটি কেবিনেট টু” স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে মজুদ না থাকায় তা বসাতে বিলম্ব হচ্ছিল।

পিসিআর মেশিনের দাবীতে অন্তত ১০ বার শহরের মানুষজন নানা সংগঠনের ব্যানারে মানবন্ধন করে। সম্প্রতি পাবনা ফাউন্ডেশনের সভাপতি ও দুদকের সাবেক কমিশনার মো. সাহাবুদ্দিন চুপ্পু এবং সাধারণ সম্পাদক রেল সচিব মো. সেলিম রেজা সংগঠনের পক্ষ থেকে এই ”বায়োসেফটি কেবিনেট টু” প্রদানের জন্য প্রতিশ্রুতি দেন।

তারই পরিপ্রেক্ষিতে সোমবার (২৮ জুন) বিকেলে পাবনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ডা. মো. বুলবুল হোসেনের কাছে বায়োসেফটি কেবিনেট টু হস্তান্তর করা হয়।

এ ছাড়া এ সংক্রান্ত পাবনা ফাউন্ডেশনের চিঠি পাবনার জেলা প্রশাসক বিশ্বাস রাসেল হোসেন, পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান, সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী র কাছে বায়োসেফটি কেবিনেট টু বিষয়ক চিঠি হস্তান্তর করা হয়।

পাবনা ফাউন্ডেশনের সহ-সভাপতি ও পাবনা প্রেসক্লাব সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান ও দফতর সম্পাদক মোহাম্মদ মহিউদ্দিন ভুইয়া ফাউন্ডেশনের পক্ষে এ সব সরঞ্জাজাম সংশ্লিষ্টদের কাছে হস্তান্তর করেন। পাবনার বিভিন্ন সংগঠন এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে।

এদিকে পাবনায় বেড়েই চলেছে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। সোমবার (২৮ জুন) জেলায় ৪১২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৮৫ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে।

পাবনার সিভিল সার্জন ডা. মনিসর চৌধুরী জানান, এ সময়ে সংক্রমণের হার ২২ দশমিক ৩১ শতাংশ। গত সাত দিনে সংক্রমণের হার ছিল ১০ দশমিক ৭৫ শতাংশ। এখন পর্যন্ত জেলায় মারা গেছে ২৩ জন।

এর মধ্যে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ৯ জন, বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৭ জন, চাটমোহরে ২ জন, ভাঙ্গুড়ায় ১, ফরিদপুরে ১ এবং সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্খ্য কমপ্লেক্সে ২ জন রয়েছেন।

সিভিল সার্জনের কার্যালয় থেকে পাওয়া তথ্যে জানা গেছে, এ পর্যন্ত জেলায় করোনা পজিটিভি শনাক্ত হয়েছে ৪ হাজার ২২৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ১৬ জন। আর গত এক সপ্তাহে সুস্থ হয়েছে ১৪৬ জন। জেলায় সুস্থতার হার ৮৩ দশমিক ২৭ শতাংশ

error: কাজ হবি নানে ভাই। কপি-টপি বন্ধ