সব রণপ্রস্তুতি, অপেক্ষা শুধু আদেশের!

চীনের সঙ্গে যুদ্ধের প্রায় সব ধরনের রণপ্রস্তুতি নিয়েছে ভারত। লাদাখ সীমান্তে রণসজ্জায় ইন্ডিয়ান এয়ারফোর্স। যে কোনও পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত ভারতীয় বিমানবাহিনী।  গালওয়ানের আকাশে মুহুর্মুহু চক্কর কাটছে এসইউ-৩০এমকেআইএস, মিগ-২৯এসের মতো বাঘা বাঘা যুদ্ধ বিমান।

এছাড়াও রাশিয়ান ইলিউশিন-৭৬ ও অ্যান্তোনভ-৩২ এর সঙ্গে প্রস্তুত আমেরিকান সি-১৭ ও সি-১৩০জে।

বিশেষ করে পূর্ব লাদাখের জন্য প্রস্তুত অ্যাপাচে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার কাছেই শত্রুপক্ষের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে চিনুক হেলিকপ্টার। মোটের উপর লাদাখে শত্রুপক্ষের মোকাবিলা করতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত ভারতীয় বিমানবাহিনী। একজন লেফটেন্যান্ট জানিয়েছেন, যে কোনও অপারেশন কিংবা সহযোগিতা সব ক্ষেত্রের জন্যই তারা একেবারে প্রস্তুত।

বিমানবাহিনীর একজন উইং কমান্ডার বলেছেন, আজকের দিনে বিমানবাহিনী খুব প্রাসঙ্গিক এবং আমার সব ধরনের সমস্যা মোকাবিলা করতে তৈরি। গালওয়ানে যুদ্ধ হলে শত্রুর বুকে আঘাত হানার সঙ্গে সঙ্গে সেনাদের সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে পারবে বিমানবাহিনী। উইং কামন্ডার এ-ও জানিয়েছেন অস্ত্র ও সৈনিক, দুই নিয়েই সেনাদের পাশে দাঁড়াতে পারবে এয়ারফোর্স।

চিনুক ও রাশিয়ান এমই-১৭ ভি৫ হেলিকপ্টারগুলি সেনাদের অবস্থান পরিবর্তন করে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য বেসে মোতায়েন করা আছে।

এছাড়া বড় অভিযানের ক্ষেত্রে চিনুক অনেক সরঞ্জাম বয়ে সামনের বেসে সহজেই পৌছে যেতে পারবে। সব মিলিয়ে লাদাখ সীমান্তে হাওয়াই হামলা কিংবা পাল্টা হামলার জন্য ভারতীয় বিমানবাহিনী সবদিক থেকেই তৈরি।