লাদাখে ফের জড়ো হয়েছে হাজার হাজার চীনা সেনা

চীন লাদাখের নিয়ন্ত্রণরেখার সব এলাকা থেকে প্রতিশ্রুতি দেওয়ার পরও সেনা প্রত্যাহার করেনি বলে দাবি করেছে ভারতীয় সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি। দেপসাং মালভূমি, গোগরা ও ফিঙ্গারস অঞ্চলে এখনও চীনা সেনাদের উপস্থিতি রয়েছে বলে দাবি তাদের। এই অবস্থায় দুই দেশের মধ্যে আবারও ব্যাপক উত্তেজনার আভাস পাওয়া যাচ্ছে ভারতীয় মিডিয়ার সংবাদে।

নিজস্ব সূত্রের বরাতে সম্প্রচারমাধ্যমটি জানিয়েছে,তবে গালওয়ান, হটস্প্রিং ও ফিঙ্গারস অঞ্চলের কয়েকটি এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহার করা হয়েছে। ভারী অস্ত্রসহ প্রায় ৪০ হাজার সেনা ওই এলাকায় মোতায়েন রেখেছে চীন।

গত ১৫ জুন লাদাখ সীমান্তের গালওয়ান উপত্যকায় চীন ও ভারতীয় সেনাদের মধ্যে প্রাণঘাতী সংঘাতের পর কূটনৈতিক ও সামরিক পর্যায়ে বেশ কয়েক দফা আলোচনা করেছে উভয় পক্ষ। এসব আলোচনায় নিয়ন্ত্রণরেখা থেকে সেনা প্রত্যাহারে সম্মত হওয়ার পাশাপাশি দুই দেশই এই প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণে রাখার কথা জানায়।

সর্বশেষ গত ১৪ ও ১৫ জুলাই দুই দেশের সেনা পর্যায়ের আলোচনায় পারস্পরিকভাবে সেনা প্রত্যাহার প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণের সিদ্ধান্ত হয়। তবে তারপর আর কোনও অগ্রগতি হয়নি।

এনডিটিভি জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণরেখার গোগরা কিংবা দেসপাং মালভূমি থেকে চীনের সেনা প্রত্যাহারের কোনও লক্ষণ নেই। এছাড়া নিজেদের দখলে রাখা ফিঙ্গারস-৪ ও ফিঙ্গারস-৮ এলাকা থেকেও সেনা প্রত্যাহার করতে চাইছে না চীন।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র এনডিটিভিকে জানিয়েছে, নিয়ন্ত্রণরেখার বিভিন্ন অংশে আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা, সামরিক যান ও দূরপাল্লায় গোলাবর্ষণকারী সরঞ্জামসহ প্রায় ৪০ হাজার সেনা মোতায়েন রেখেছে চীন। আরেকটি সূত্র অভিযোগ করেছে, নিজেদের প্রতিশ্রুতির প্রতি সম্মান দেখাচ্ছে না চীন।