লাগামহীনভাবে বাড়ছে সয়াবিন তেলের দাম!

সয়াবিন তেলের বাজার ফের ঊর্ধ্বমুখী। এবার একদফাতেই প্রতি লিটারে বাড়ছে ৯ টাকা। তাতে বোতলজাত সয়াবিন তেলের প্রতি লিটারের দাম পড়বে ১৫৩ টাকা। আর খোলা তেলের দাম প্রতি লিটার ১২৯ টাকা।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) রাতে সয়াবিন তেলের এই দামবৃদ্ধির ঘোষণা দিয়েছে তেল পরিশোধন ও বিপণনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বেড়ে যাওয়াকে কারণ হিসেবে দেখিয়ে সংগঠনটি বলছে, সে তুলনায় দেশের বাজারে দাম ততটা বাড়েনি।

সংগঠনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এখন থেকে প্রতি লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেলের দাম ৯ টাকা বাড়িয়ে ১৫৩ টাকায় বিক্রি করা হবে। আগে প্রতি লিটার সয়াবিন তেলের দাম ছিলো ১৪৪ টাকা।

বিজ্ঞপ্তির তথ্য অনুযায়ী, বর্ধিত দামে পাঁচ লিটারের এক বোতল তেলের দাম ধরা হয়েছে ৭২৮ টাকা। এছাড়াও প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল ১২৯ টাকা ও পাম সুপার তেল ১১২ টাকা বিক্রি করা হবে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

সংগঠনটির সচিব মো. নুরুল ইসলামের সই করা সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, ২০২০ সালের জুনের পর থেকে আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিন তেলের দাম অস্বাভাবিক হারে বেড়েছে। দেশের ভোজ্যতেলের মোট চাহিদার ৯৫ শতাংশের বেশি আমদানি করতে হয়। এ অবস্থায় সম্প্রতি আন্তর্জাতিক বাজারে দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে স্থানীয় বাজারেও এর প্রভাব পড়েছে। বরং আন্তর্জাতিক বাজারে যে পরিমাণ দাম বেড়েছে, স্থানীয় বাজারে সে পরিমাণ বাড়েনি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় থেকে নিয়মিতভাবে দেশীয় উৎপাদন, আন্তর্জাতিক বাজার পরিস্থিতি, আমদানি পরিস্থিতি ও স্থানীয় বাজার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। গত এক বছরে আন্তর্জাতিক বাজারে সয়াবিন তেলের দাম বেড়েছে প্রায় ১৬০ শতাংশ। একই সময়ে স্থানীয় বাজারে এর দাম বেড়েছে ‘মাত্র’ ৩৫ শতাংশ।

এর আগে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অনুরোধে ঈদুল ফিতরের আগে লিটারে ৩ টাকা করে সয়াবিন তেলের দাম কমিয়েছিল বাংলাদেশ ভেজিটেবল অয়েল রিফাইনার্স অ্যান্ড বনস্পতি ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। আন্তর্জাতিক বাজারে অনেক বেশি হারে দাম বেড়ে যাওয়াকে কারণ দেখিয়ে গত ১৯ মে লিটারে ১৩ টাকা করে দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নেয় সংগঠনটি। বিষয়টি বিবেচনার জন্য বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে অবহিত করে। এর মধ্যেই বৃহস্পতিবার রাতে সয়াবিন তেলের প্রতি লিটারে ৯ টাকা বাড়ানোর ঘোষণা দিলো তেল আমদানি ও বিপণনের সঙ্গে যুক্ত এই সংগঠন।