দইয়ে প্রতারণা: পাবনার লক্ষ্মী মিষ্টান্ন ভান্ডারকে জরিমানা

দই বিক্রিতে ওজন কম দিয়ে প্রতারণার অভিযোগে পাবনার লক্ষ্মী মিষ্টান্ন ভান্ডারকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাতিল বা খুঁটিতে কারসাজি করে দইয়ের ওজনে প্রতারণার অভিযোগে বুধবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরে অভিযান চালায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

অভিযানে নেতৃত্ব দেন পাবনা জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী মো. পরিচালক জহিরুল ইসলাম। এসময় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অভিযানে ওজন কম দেয়ার অভিযোগ হাতে নাতে প্রমাণ হয়। দইয়ের পাতিলের ওজন ৭৪৬ গ্রাম হলেও বাদ দেয়া হয় মাত্র ৩০০ গ্রাম। অর্থাৎ বাকি খালি মাটির খুঁটি ১৩০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। এমন প্রতারণা করায় দোকান মালিককে সতর্ক করে ৫০০০ টাকা জরিমানা করা হয়। পরে শহরের টাক্কু বাবুর্চীর দোকানে অভিযান চালিয়ে বোরহানির লেবেলে উৎপাদন ও মেয়াদ তারিখ না থাকায় ২০০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

জেলা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জহিরুল ইসলাম জানান, জেলায় পণ্য বিপননে কারসাজি প্রতিরোধে ভোক্তাদের যেকোনো অভিযোগ তদন্ত ও ব্যবস্থা নিতে কাজ করছে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। পণ্য ক্রয়ে প্রতারণার শিকার হলে কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ জানানোর আহবান জানান তিনি।