রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে দুর্ঘটনায় প্রকৌশলী নিহত

নির্মাণাধীন পাবনার রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে কর্মরত অবস্থায় মাথায় বোম প্লেসার পড়ে আব্দুল মবিন (৩৫) নামের একজন প্রকৌশলী নিহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ এপ্রিল) বিকেল চারটার দিকে দুর্ঘটনায় আহত হন তিনি। রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যা সাতটার দিকে তার মৃত্যু হয়।

নিহত প্রকৌশলী মবিন পাবনা সদর উপজেলার টেবুনিয়া মজিদপুর গ্রামের কেরামত আলী খানের ছেলে। তিনি রুপপুরে প্রকল্পে তিনি ভারতীয় সাব ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ‘পাহারপুর কুলিং টাওয়ার’ এর  প্রকৌশলী হিসেবে চাকরি করতেন।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বাহাউদ্দিন ফারুকী জানান, রাজশাহীর রাজপাড়া থানায় ইউডি মামলা হবে এবং রাজশাহী মেডিকেলের মর্গে ময়না তদন্ত শেষে মরদেহ পাবনায় আসবে। যদি পরিবার থেকে অভিযোগ দেয় তাহলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রুপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্পের সাইট ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস এ দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বৃহস্পতিবার বিকেলে রুপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পে নির্মাণাধীন কুলিং টাওয়ারে ২৯০০ লোডের ঢালাইয়ের কাজ চলছিল। এ সময় বোম প্লেসার ভেঙ্গে ওই প্রকৌশলীর মাথার উপর পড়লে গুরুতর আহত হন তিনি। তাকে উদ্ধার করে প্রকল্পের মেডিকেল সেন্টারে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়ার পর পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

সেখানে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। এই পর্যায়ে তাঁকে রাজশাহী থেকে এয়ার এ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নেয়ারও প্রস্তুতি চলছিল। শেষ পর্যন্ত রাজশাহীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।

error: কাজ হবি নানে ভাই। কপি-টপি বন্ধ