পাবনায় জোর করে জমি দখল, কোথাও মিলছে না প্রতিকার!

পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার কাশিনাথপুরে ভূমিদস্যু নুরুনবী ও আলমাছ বাহিনী কর্তৃক জোর করে ২ একর ১০ শতাংশ জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। এবিষয়ে প্রশাসনের কাছে গিয়েও কোনও প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না।

বুধবার (১১ মে) দুুপুর পাবনা প্রেসক্লাবের ভিআইপি অডিটরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন ভূক্তভোগী জমির মালিক নুরু মোহাম্মদ।

লিখিত বক্তব্যে নুরু মোহাম্মদ বলেন, ২০১৪ সালে আমি প্রায় দেড় কোটি টাকার মূল্যে কাশিনাথপুর মৌজার আরএস ১৬৭২, ১৬৭৪ এবং ১৬৭৩ নং দাগের মোট ২ একর ১০ শতাংশ জমি কিনি। জমি কেনার পরপর আমার দখলে থাকলে আমি ঢাকায় থাকার কারণে কিছুদিন পর ওই জমি জোর করে দখলে নেয় ভূমিদস্যু নুরুনবী ও আলমাছ বাহিনী।

তিনি বলেন, ‘পরবর্তীতে জমি উদ্ধারে গেলে আমাকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয়া হয়। আমি এলাকার শান্তি প্রিয় ও আইন প্রতি শ্রদ্ধাশীল ব্যক্তি। জীবনের নিরাপত্তার কথা ভেবে কিছুদিন জমির ওপর যাওয়া থেকে বিরত থাকি।’

এবিষয়ে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টদের কাছে কোনও প্রতিকার পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন বলেন, ‘বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিদের কাছে বিচার চেয়েও ব্যর্থ হই। সাঁথিয়া থানা পুলিশের কাছে অভিযোগ দিলেও কোনও ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এবিষয়ে পাবনা পুলিশ সুপার মহাদয়ের কাছেও লিখিত অভিযোগ দিয়েছিলাম।

নুরুনবী ও আলমাছ বিএনপি-জামায়াতের লোকজন হলেও স্থানীয় ক্ষমতাসীনদের সঙ্গে তাদের যোগসাজসের কারণে কোনও পাওয়া যাচ্ছে না বলেও অভিযোগ করেন তিনি।