ভারত-বাংলাদেশ ‘অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ’, টানাপোড়েনের খবরটি ‘ক্ষতিকর’: নয়াদিল্লি

চীন-ভারতের উত্তেজনার মধ্যে বাংলাদেশ-ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে যে সব সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে তা দুই দেশের সম্পর্কের জন্য ক্ষতিকর বলে মন্তব্য করেছে নয়াদিল্লি। দুই দেশের সম্পর্ক ‘অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ’ জানিয়ে সংবাদটি ‘সাজানো ও মন গড়া’ বলেও দাবি করা হয়।

বৃহস্পতিবার (৩০ জুলাই) ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব সাপ্তাহিক ব্রিফিংয়ে সম্প্রতি প্রকাশিত এসব সংবাদ নিয়ে স্থানীয় সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এ কথা বলেন।

ভারত–বাংলাদেশ সম্পর্ক নিয়ে সম্প্রতি বাংলাদেশের এক সংবাদপত্রে একটি নিবন্ধ প্রকাশিত হয়। তাতে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সাম্প্রতিক ‘টানাপোড়েন’–এর উল্লেখ করে বলা হয়, ভারতীয় হাইকমিশনার চার মাস ধরে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাৎপ্রার্থী। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওই প্রতিবেদনকে ‘ক্ষতিকর’ ও ‘সাজানো–মন গড়া’ জানিয়ে বলেন, দুই দেশের সম্পর্ক ‘অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ’।

ভারতের একটি এক সংবাদপত্রে প্রকাশিত বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেনের একটি মন্তব্য নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠান সম্পর্কে প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেছিলেন, ভারতের এমন কিছু করা ঠিক নয়, যাতে সম্পর্কে চিড় ধরে। জবাবে অনুরাগ শ্রীবাস্তব বলেন, দুই দেশই পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও সংবেদনশীলতার প্রতি যত্নবান। দুই দেশই সম্পর্ককে এগিয়ে যেতে আগ্রহশীল।

তিনি জানান, ‘ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীও সম্প্রতি বলেছেন, সুপ্রতিবেশী কেমন হয় বাংলাদেশ তার রোল মডেল। আমরা নিশ্চিত, সম্পর্কের উন্নতিতে দুই দেশই পারস্পরিক শ্রদ্ধা ও সংবেদনশীলতার প্রতি যত্নবান।’

অপরদিকে বাংলাদেশের সম্পর্ক নিয়ে ভারতের গণমাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত এসব প্রতিবেদনকে ‘রাবিশ’ বলে আখ্যায়িত করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনও।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক নিবিড় সম্পর্ক এবং এই সম্পর্কে কে ফোন করলো, কে কি করলো, সেই ঘটনায় দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে প্রভাব ফেলার সুযোগ নেই। বাংলাদেশের অবস্থানের কোনও পরিবর্তন হয়নি। মিডিয়া ইচ্ছা করে অবান্তর জিনিস রটাচ্ছে, যাকে রাবিশ বলা যায়।’

তিনি বলেছেন, ‘বিভিন্ন গণমাধ্যম অবান্তর বিষয় রটাচ্ছে। তবে এটি অন্য দেশের সঙ্গে সম্পর্কে প্রভাব ফেলবে না। আমরা শান্তিপ্রিয় দেশ এবং সবার সঙ্গে আমাদের বন্ধুত্ব, কারও সঙ্গে শত্রুতা নাই।’

ব্রেকিংনিউজ/ এসএ