পাবনা-৪ আসনের এমপি ও সাবেকমন্ত্রী ডিলু আর নেই

পাবনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য, ভাষাসৈনিক, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলু (৮০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) ভোর সাড়ে ৫টায় ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতা রিয়াজুল কবীর কাওসার বাংলা ট্রিবিউনকে তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

কয়েক মাস ধরে তিনি লন্ডনে ও ভারতের মুম্বাইয়ের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে গত জানুয়ারির শেষে দেশে ফিরে আসেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, চার ছেলে, পাঁচ মেয়ে, নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

শামসুর রহমান শরীফ ডিলু ১৯৪০ সালের ১০ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। শৈশবে ঈশ্বরদীর লক্ষীকুন্ডা ইউনিয়নে প্রাইমারি স্কুল ও পাকুড়িয়া মিলড ইংলিশ স্কুলে পড়াশোনা করে পাবনা জেলা স্কুলে ভর্তি হন। পাবনা জেলা স্কুল থেকে ১৯৫৭ সালে ম্যাট্রিক পাস করেন। ১৯৬০ সালে ইন্টারমিডিয়েট এবং ১৯৬২ সালে তিনি গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন।

পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শামসুর রহমান শরীফ ১৯৯৬ সাল থেকে টানা পাঁচ বার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিজয়ী হলে ২০১৪ সালের ১২ জানুয়ারি বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

এদিকে বাংলা ট্রিবিউনেরপাবনা প্রতিনিধি জানান, পাবনা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স, পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, পাবনা-২ আসনের সংসদ সদস্য আহমেদ ফিরোজ কবির, পাবনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য মকবুল হোসেন, পাবনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রেজাউল রহিম লাল, জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ, পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম, বিশিষ্ট শিক্ষাবীদ পাবনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি প্রফেসর শিবজিত নাগ, পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান, সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও বিদেহীর আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন। পাশাপাশি শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতিসমবেদনা জ্ঞাপন করেন।