পাবনায় হঠাৎ কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে শোডাউন দিল বিএনপি (ভিডিওসহ)

আগামী ৩০ জানুয়ারি পাবনা পৌরসভা নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণা এখন তুঙ্গে। জেলার অন্যান্য পৌরসভায় তৎপরতা না থাকলেও হঠাৎ করে কেন্দ্রীয় নেতাদের নিয়ে পাবনা শহরে শোডাউন দিল পাবনা জেলা বিএনপি ।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে পাবনা শহরের আব্দুল হামিদ রোডে এক বিশাল মিছিল করে জেলা বিএনপি ও অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। এতে নিরবে থাকা কয়েকশ নেতাকর্মী অংশগ্রহণ করেন। এসময় ‌’ধানের শীষ’, ‘ধানের শীষ’ স্লোগানে স্লোগানে মুখর হয়ে ওঠে পাবনা শহর।

মিছিলটি গোপালপুরস্থ জেলা বিএনপির কার্যালয় থেকে শুরু হয়। শহরের প্রধান সড়ক আব্দুল হামিদ রোড প্রদক্ষিণ করে খেয়াঘাট রোডে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

এর আগে দুপুর থেকে দলীয় কার্যালয়ে পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত ধানের শীষের প্রার্থী নূর মোহম্মদ মাসুম বগার সমর্থনে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মিছিল ও সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও জেলা বিএনপি আহবায়ক হাবিবুর রহমান হাবিব, বিএনপি চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, রাজশাহী সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র ও রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল, কৃষক দলের সদস্য সচিব কৃষিবিদ হাসান জাফির তুহিন, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব সিদ্দিকুর রহমান সিদ্দিক, সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মান্নান প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, পাবনা পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষের জোয়ার উঠেছে। জনগণ নিরবে ভোট বিপ্লব ঘটাতে চায়, কিন্তু ক্ষমতাসীনরা ভোট ডাকাতির পরিকল্পনা করছে। তবে পাবনায় ভোট ডাকাতি করলে দাঁতভাঙা জবাব দেয়া হবে।

তারা আরও বলেন, নূর মোহম্মদ মাসুম বগা দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজের সফল ও জন্যপ্রিয় ভিপি ছিলেন। ফলে এই নির্বাচনে অন্যান্য প্রার্থীদের চেয়ে সবচেয়ে যোগ্য প্রার্থী তিনি। প্রচার-প্রচারণায় যে পরিমাণে ধানের শীষের জন্য সাড়া পাওয়া যাচ্ছে, তাতে আগামী ৩০ জানুয়ারি ধানের শীষের বিজয় সুনিশ্চিত।

আগামী শনিবার নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিন মাঠে থেকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের মনোনিত প্রার্থীকে বিজয়ী না করে ঘরে ফিরে যাবে বলেও অঙ্গীকার করেন নেতাকর্মীরা।