পাবনায় ৩ হাজার লিটার তেল মজুদ, এবার জরিমানা ১ লাখ টাকা!

পাবনার ঈশ্বরদীর পর এবার সুজানগরে অভিযান চালিয়ে অবৈধভাবে মজুদ করে রাখা ৩১৩৭ লিটার সোয়াবিন তেল জব্দ করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বুধবার (১১ মে) দুপুরের দিকে সুজানগরের শহরের ঘোষ স্টরে এসব তেল জব্দ করা হয়ে। এসময় দোকান মালিককে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। জব্দকৃত তেলের মধ্যে রয়েছে ১৪৩৫ লিটার খোলা সয়াবিন তেল ও ১৭০২ লিটার বোতলজাত সয়াবিন তেল।

বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টি করে বেশি দামে বিক্রির আশায় বেশ কিছুদিন ধরে অসাধু ব্যবসায়ীর তেল মজুদ করে আসছে। এর আগে মঙ্গলবার (১০ মে) পাবনার ঈশ্বরদীতে শ্যামল পালের শ্যামল স্টোরে ১৮ হাজার লিটার সোয়াবিন তেল জব্দ করেও নামে মাত্র ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছিল।

পাবনা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জহিুরুল ইসলাম জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দোকানের গোডাউনে অভিযান চালিয়ে এসব তেল জব্দ করা হয়েছে। এসব তেল ঈদ-উল-ফিতরের পূর্বে ক্রয় করে মজুদ করে বাজারে কৃত্রিম সংকট তৈরি করেন। আগামী কোরবানির ঈদে বেশি মুনাফার আশায় বিক্রির পরিকল্পনা করেছিল।

অবৈধভাবে তেল মজুদ করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এঁর ধারা ৪০ ও ৪৫ অনুযায়ী দোকানের মালিক দুলাল ঘোষকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জব্দকৃত তেলের মধ্যে বোতলজাত ১৭০২ সয়াবিন তেল খোলা বাজারে আগের ন্যায্যমূল্যে বিক্রি করে দেয়া হয়।

এ অভিযান পরিচালনা করতে সহায়তা প্রদান করেন সুজানগর উপজেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর মির্জা ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমেদ ও নিরাপত্তা বিধানে সহযোগিতা করেন সুজানগর থানা পুলিশের একটি টিম।