পাবনায় সাপে ছোবলের পর ‘দুই কবিরাজের ঝাড়ফুঁক’!, অতঃপর অন্তঃসত্ত্বার মৃত্যু

বাড়ির গোয়াল ঘরে গরুর খাবার দিতে গেলে বিষাক্ত সাপে ছোবল মারে। অসুস্থ হলে নেয়া হয় এক কবিরাজের কাছে, সেই কবিরাজ ব্যর্থ হলে নেওয়া হয় আরেক কবিরাজের কাছে। ‌ দুই কবিরাজ করে ব্যর্থ হলে ৪ ঘন্টা পর নেওয়া হয় হাসপাতালে। ততোক্ষণে প্রাণটাই ফুরিয়ে গেছে অন্তঃসত্ত্বা এই নারীর।

শনিবার (১৮ জুন) রাতে পাবনার বেড়া উপজেলা চাকলা ইউনিয়নের পূর্বপাড়া গ্রামে এঘটনা ঘটে।

মৃত ‌আকলিমা খাতুন (২৪) ওই গ্রামের শাহানুর প্রামানিকের স্ত্রী। আকলিমার চার বছর বয়সী একটি মেয়ে আছে। তিনি দুই মাসের অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন।

মৃত ‌আকলিমার স্বামী শাহানুর প্রামাণিক জানান, শনিবার বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে গোয়াল ঘরে গরুকে খাবার দিতে গেলে একটি বিষাক্ত সাপ কামড় দেয়। এসময় তাকে গ্রামের এক কবিরাজের কাছে নেয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার আরো অবনতি হলে তাকে নেয়া হয় বেড়া পৌর এলাকার আরেক কবিরাজের কাছে। ‌তিনিও বিষমুক্ত করতে ব্যর্থ হন। শেষে রাত সাড়ে নয়টার দিকে তাকে নেয়া হয় বেড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। সেখানে নেয়া হলে কর্তব্যরত তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

চিকিৎসক ডা. রেজাউল করিম জানান, হাসপাতালে নেওয়ার আগেই ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে। ‌ ফলে আমাদের তেমন কিছু করার ছিল না। মরদেহ পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়।