পাবনায় চলতি মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড

হাড় কাঁপানো শীত পড়ছে পাবনায়। পাবনাসহ দেশের বিভিন্ন জেলার ওপর দিয়ে বয়ে যাচ্ছে শৈত্যপ্রবাহ। ফলে মাঘ মাসের মাঝামাঝিতে হাড় কাঁপানো শীতে নাকাল জনজীবন হয়ে পড়েছে।

পাবনা জেলার ঈশ্বরদীতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা চলতি মৌসুমে এই জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। আর দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

রবিবার (৩১ জানুয়ারি) সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ কথা বলা হয়েছে।

পূর্বাভাসে বলা হয়,কুড়িগ্রাম ও রাজশাহী জেলার ওপর দিয়ে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ এবং ময়মনসিংহ, রাজশাহী এবং রংপুরের বিভাগের অন্যত্র ও টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, নিকলী, শ্রীমঙ্গল, খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, বরিশাল ও ভোলা অঞ্চলসমূহের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে।

অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশে আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। চট্টগ্রাম ও বরিশাল বিভাগের রাতের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং তা অন্যত্র পায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। সারাদেশে দিনের তাপমাত্রা পায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

রবিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে কুড়িগ্রামের রাজারহাটে ৫.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল টেকনাফে ২৯.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং রবিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।