পাবনায় সরকারি ভবন ভেঙে দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান!

সুজানগর সংবাদদাতা: পাবনার সুজানগর উপজেলার দুলাই ইউনিয়নের আন্ধারকোটায় স্থাপিত সরকারি গণমিলনায়তন কেন্দ্র ভবন অবৈধভাবে ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম শাহজাহানের বিরুদ্ধে।

মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে তিনি শক্তিশালী ভেকু দিয়ে ভবনটি ভেঙে দেন।

উপজেলা সমাজসেবা অফিস সূত্রে জানা যায়, তৃণমূল জনগোষ্ঠীর ভাগ্যন্নোয়নের লক্ষে ১৯৮৫ সালের দিকে সমাজসেবা অধিদপ্তরের অর্থায়নে অধিদপ্তরের নিজ নামীয় ১৬ শতাংশ জমির উপর ঐ গণমিলনায়তন কেন্দ্র ভবনটি নির্মাণ করা হয়। ১৯৮৫ সাল থেকে ৯০’র দশক পর্যন্ত উক্ত কেন্দ্র থেকে তৃণমূল জনগোষ্ঠীর মাঝে সুদমুক্ত ক্ষুদ্র ঋণ প্রদান এবং ঋণ আদায়সহ সমাজসেবা সংক্রান্ত অন্যান্য কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। পরবর্তীতে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণের পর ঐ কেন্দ্রের পরিবর্তে ইউনিয়ন পরিষদ ভবন থেকে উক্ত কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা নাজমুল হাসান বলেন বর্তমানে উক্ত কার্যক্রম ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স থেকে পরিচালিত হলেও সমাজসেবা অধিদপ্তর ঐ কেন্দ্রটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করেন নাই। এমনকি কেন্দ্রটি অদ্যবধি উপজেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের দখলে রয়েছে। কিন্তু তা সত্ত্বেও ঐদিন ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম শাহজাহান ঐ জমি জবর দখলের হীন লক্ষে অবৈধভাবে কেন্দ্র ভবনটি ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেয়। চেয়ারম্যান শাহজাহান বলেন উক্ত কেন্দ্র ভবনটি আমার পৈতৃক সম্পত্তির উপর নির্মিত। তাছাড়া ভবনটি দীর্ঘদিন ব্যবহৃত হয়না। সেকারণে আমি ভেঙ্গে ফেলেছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ রওশন আলী বলেন আইনগত বিষয় খতিয়ে দেখে উক্ত চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

>> পাবনার নিয়মিত ভিডিও পেতে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল আইকনটি চালু করুন। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন