পাবনায় সরকারি গাছ কাটায় হাতেনাতে আটক আ.লীগ নেতাকে ছেড়ে দিলেন কর্মকর্তা!

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় রাস্তার পাশে দাড়িয়ে থাকা সরকারি গাছ কাটায় ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নায়েক কাদেরকে হাতেনাতে আটক করে যোগসাজস করে পরেরদিন ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে উপজেলা বনবিভাগের কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেনের বিরুদ্ধে।

গত রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার জয়নগর বোর্ডঘর পোড়ের পাশ থেকে তাকে আটক করে হাইওয়ে পুলিশ, পরে বনবিভাগের কাছে হস্তান্তর করে, কিন্তু বনবিভাগের কর্মকর্তা পরিবাবের সাথে যোগসাজস করে মোটা অংকের টাকা নিয়ে পরের দিন সোমবার (১ মার্চ) দুপুরে ছেড়ে দিয়েছে বলে জানা যায়, তবে এই টাকা নেওয়ার বিষয়টি পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন তিনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রবিবার দুপুরে সলিমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, নায়েক কাদের তার দলবল নিয়ে এসে রাস্তার পাশের সরকারি গাছ কাটতে দেখে বিষয়টি হাইওয়ে পুলিশকে জানালে তাৎক্ষণিক অভিযান পরিচালনা করে আটক করে, পরে বনবিভাগের নিকট হস্তান্তর করে পুলিশ।

হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান মনির বলেন, আমরা আটক করে বনবিভাগের নিকট হস্তান্তর করেছিলাম, তার পর তারা কি করছে সেটা তাদের ব্যাপার।

বনবিভাগের ঈশ্বরদীর কর্মকর্তা ইসমাইল হোসেন বলেন, এটি একটি সাধারণ ঘটনা, বিষয়টি নিয়ে সমাধান করার চেষ্টা করছি, সরকারি গাছ কাটায় দুই ঘন্টা আটক রাখা হয়েছিল তাকে, বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন মহল এমনভাবে ফোন দিচ্ছে মনে হচ্ছে ঈশ্বরদীর এককোণা খসে গেছে, সারা দেশের হাজার হাজার কোটি টাকার অনিয়ম হচ্ছে। সেখানে দেখেন না এখানে দেখেন কেন? সাংবাদিকদের প্রশ্ন করেন তিনি। বিষয়টি এমন না যেটা নিয়ে মিডিয়ায় নিউজ করতে হবে।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি আমরা অবগত নয়, থানায় এ বিষয়ে কোন অভিযোগ আসেনি, কাউকে হস্তান্তর করেনি।