পাবনায় র‌্যাবের অভিযান, চোলাই মদসহ ৪ ব্যবসায়ী গ্রেফতার

পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলায় ভেজাল চোলাই মদের কারাখানায় অভিযান চালিয়েছে ৪ জন ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন-র‍্যাব। এসময় বিপুল চোলাই মদ উদ্ধার করা হয়েছে।

সোমবার (২৭ ডিসেম্বর) রাতে উপজেলার অষ্টমনিষার ঘোষপাড়ার এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেলে র‌্যাব-১২ পাবনা ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার ও সহকারী পরিচালক (সহকারী পুলিশ সুপার) কিশোর রায় প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানান।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- নৌবাড়িয়ার নতুনপাড়ার মোঃ ইব্রাহিম হোসেনের ছেলে মো. নাজিম উদ্দিন (২৬), সিংকলকতির আব্দুল জব্বারের ছেলে মো. হুমায়ন কবির (২৮), অষ্টমনিষার মৃত শচীন্দ্র নাথ শীলের ছেলে শ্রী রতন কুমার শীল (৫৬) ও রতনের ছেলে হীরা কুমার শীল (৩০)।

র‍্যাব জানায়, সোমবার বিকেলের দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ঘোষপাড়ার কালা শীলের বাড়ির সামনে থেকে অভিযান চালিয়ে নাজিম ও হুমায়ন দুই মাদকসেবীকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে ৫০০ মিঃ লিঃ অবৈধ নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য চোলাইমদ, মোবাইল ২টি, সীম ৩টি এবং নগদ ১,০১০/- (এক হাজার দশ) টাকা উদ্ধার করা হয়। আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, তারা দীর্ঘদিন যাবত অবৈধ নেশাজাতীয় মাদকদ্রব্য চোলাইমদ সেবন করে আসছে।

অপরদিকে নাজিম ও হুমায়নকে গ্রেফতার পর ওই এলাকার শ্রী রতন কুমার শীলের ভাড়া বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এসময় রতন ও তার ছেলেকে গ্রেফতার করা হয়। এসময় তাদের কাছ থেকে রেজিষ্টারে লিপিবদ্ধ মজুদের অতিরিক্ত ১০০ লিটার অবৈধ নেশা জাতীয় মাদকদ্রব্য চোলাইমদ, রেজিষ্টার খাতা ২টি এবং নগদ ১৫ হাজার ৩৭০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানায়, তারা দীর্ঘদিন যাবত অবৈধ নেশাজাতীয় মাদকদ্রব্য চোলাইমদ অবৈধভাবে মজুদের অতিরিক্ত নিজ হেফাজতে রেখে অনঅনুমোদিত ব্যক্তিদের কাছে নিজ এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় বিক্রয় করে আসছিল।