পাবনায় মশার কয়েল থেকে ঘরে অগ্নিকাণ্ড, একজনের মৃত্যু

মশার কয়েল থেকে আগুন ধরে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় ফোরকান মালিথা (৫০) নামের এক ব্যক্তি অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছেন। শনিবার (৯ জানুয়ারি) দিবাগত রাতে উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের মিরকামারী গ্রামে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যাওয়া ফোরকান মালিথার বাড়ি ঈশ্বরদী উপজেলার মিরকামারী গ্রামে। এ ঘটনায় ঈশ্বরদী থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে।

স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে, ফোরকান মালিথা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। বাড়ির আধা পাকা একটি ঘরে তিনি একাই থাকতেন। শনিবার রাতে মশার কয়েল জ্বালিয়ে তিনি ঘুমিয়ে পড়েন। রাত সাড়ে তিনটার দিকে গ্রামের লোকজন হঠাৎ তাঁর ঘরে আগুন জ্বলতে দেখেন। এ সময় স্থানীয় লোকজন ফায়ার সার্ভিস স্টেশনে খবর পাঠান। খবর পেয়ে দ্রুত ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন। তবে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা সেখানে যাওয়ার আগেই ফোরকান আগুনে পুড়ে মারা যান।

এ বিষয়ে ঈশ্বরদী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা আরিফুল ইসলাম জানান, ঘরটিতে বেশ কিছু প্লাস্টিকের বোতল ও পলিথিন ছিল। ঘরে জ্বলন্ত একটি মশার কয়েলও পাওয়া গেছে। তাঁদের ধারণা, মশার কয়েল থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। পরে সে আগুন পলিথিন ও প্লাস্টিকের বোতলে লেগে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। ঘর থেকে দ্রুত বের হতে না পারায় ফোরকান মালিথা অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান।

এ প্রসঙ্গে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শেখ নাসীর উদ্দিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। অগ্নিকাণ্ডে মারা যাওয়া ফোরকানের পরিবার কোনো অভিযোগ করেননি। তাই তাঁর লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা করা হবে।