পাবনায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় গুচ্ছ পদ্ধতিতে বাংলা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে পরীক্ষা গ্রহণের মাধ্যমে বিভাগ পরিবর্তন “ডি” ইউনিট চালুর দাবিতে পাবনায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (৩ জানুয়ারি) বেলা ১১ টার দিকে পাবনা অঞ্চলের বিশ্বাবিদ্যালয়ে ভর্তি ইচ্ছুক আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা এক বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এসময় শিক্ষার্থীরা পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড কলেজ গেট থেকে একটি  মিছিল নিয়ে পাবনা শহরের ট্রাফিক মোড় চত্বরে  সমাবেশে ও প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করে। ঘন্টাব্যাপীচলা এই কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন, শ্রী জীবন কুমার সরকার, হাশিবুর রহমান, দূর্জয় সরকার, তন্নী খাতুন, ফাহিম আহম্মেদ প্রমুুখ।

সমাবেশে বিশ^বিদ্যালয়ে ভর্তি ইচ্চুক শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরা যারা এইচ এসসি পাস করে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের জন্য বিভিন্ন বিশ^বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে চাই তারা প্রথমেই পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে সমস্যার মধ্যে পরছি। গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা গ্রহণ এটা আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিলো। কিন্তু এই পরীক্ষা পদ্ধতি থেকে “ডি” উইনিট বাতিল করা হয়েছে।

সকল বিশ^বিদ্যালয়ে এক সাথে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও বিভাগ পরিবর্তনের জন্য “ডি” ইউনিট রাখতে হবে। তাই আমরা পরীক্ষা প্রসঙ্গে ৩ টি প্রস্তাবনা রেখেছি সংশ্লিষ্ঠদের কাছে।

প্রস্তাবনা গুলো হলো

আলাদা বিভাগ পরিবর্তন ইউনিট, মানবিকের সাথে বিভাগ পরিবর্তন একই প্রশ্ন এবং নিজ বিভাগেই বিজ্ঞান বিভাগের সাথে বাংলা, ইংরেজি, সাধারণ জ্ঞান প্রশ্ন রেখে পরীক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

যেখানে উল্লেখ করা হয়, যারা বিজ্ঞান বিষয় নিয়ে পড়বে তারা শুধু মাত্র বিজ্ঞান দাগাবে, আর যারা বিভাগ পরিবর্তন ইউনিট এ পরীক্ষা দিবে তারা বাংলা, ইংরেজি এবং সাধারণ জ্ঞান বিষয়ের উপর পরীক্ষা দিবে। তাই গুচ্ছ পদ্ধতিতে বিভাগ পরিবর্তনের জন্য “ডি” ইউনিট চালুর দাবিতে আন্দোলন করছে এই শিক্ষার্থীরা।

পরীক্ষার এই পদ্ধতিগত বিষয়ে দ্রæত সমাধান করে বিশ^বিদ্যালয়ে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের উচ্চ শিক্ষা গ্রহণের সুযোগ সৃষ্ঠি করবেন বলে সরকারের শিক্ষামন্ত্রণারয়সহ প্রধানমন্ত্রীয় সুদৃষ্ঠি কামনা করেন এই আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষনা দেন তারা। শিক্ষার্থীরা বলে সারা দেশে প্রায় তিন লক্ষ শিক্ষার্থী রয়েছে যরা শুধু “ডি” ইউনিটে বিভাগ পরিবর্তন করে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করবে। তাই সরকারের সুদৃষ্ঠি কামনা করেন তারা।