পাবনায় বিএনপি প্রার্থীকে প্রচারণা বন্ধ করে বাড়িতে বসে থাকতে আল্টিমেটাম

বার্তা সংস্থা পিপ (পাবনা) : পাবনায় বিএনপি প্রার্থীকে প্রচারণা বন্ধ করে বাড়িতে বসে থাকতে আল্টিমেটাম দিয়ে যাচ্ছেন প্রতিপক্ষের লোকজন। প্রচারণার শুরুতেই এমন অভিযোগ করেছেন সুজানগর পৌরসভার বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী কামাল বিশ্বাস।

রবিবার দুপুরে বিএনপি প্রার্থী কামাল হোসেন বিশ্বাস পাবনা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন।

তবে বিএনপি প্রার্থীর এসব অভিযোগ‘গতানুগতিক’ দাবি করেন আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী রেজাউল করিম রেজা। তিনি বলেন, বিএনপি প্রার্থী জনবিচ্ছিন্ন হয়ে এসব অভিযোগ করছেন। বিএনপির মধ্যে অভ্যান্তরিণ কোন্দল রয়েছে। তাদেরই কেউ তাঁকে হুমকি ও বাধা দিতে পারেন।

সংবাদ সম্মেলনে নির্বাচনে নিযুক্ত রির্টানিং কর্মকর্তা বরাবর দেয়া অভিযোগ পত্রে তিনি জানান, নির্বাচনে মনোনয়নপত্র জমা দেবার পর থেকেই তিনি বিভিন্নভাবে হুমকির সম্মুখিন হচ্ছেন। তাঁকে নির্বাচন থেকে সরে দাড়ানোর জন্য আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থীর সমর্থকরা ভয়ভীতি দেখাচ্ছেন।

গত ১৬ জানুয়ারি প্রতিক বরাদ্দ হবার তিনি আনুষ্ঠানিকভাবে প্রচারণা শুরু করেন। এদিন দুপুরে মাইক বের করলে সুজানগর বাজার এলাকায় তাঁর প্রচারের মাইকটি ভেঙে দেয়া হয়। এদিন বিকেলেই ৮ থেকে ১০ জনের একদল সন্ত্রাসী তাঁর বাড়িতে গিয়ে তাকে ভয়ভীতি দেখান। তাঁকে প্রচার প্রচারনা বন্ধ করে বাড়িতে বসে থাকার আল্টিমেটাম দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বাড়ি থেকে বেড় হলে হত্যার হুমকি দেন। এ সময় তিনি প্রতিবাদ জানালে সন্ত্রাসীরা তাঁকে বাড়ীর মধ্যেই মারপিট করেন।

কামাল বিশ^াস বলেন, বিভিন্ন হুমকি ধামকি ও বাড়িতে এসে মারপিট করায় আমি পরিবার নিয়ে অনিরাপদ হয়ে পরেছি। বিষয়টি মৌখিক ও লিখিতভাবে নির্বাচনে নিযুক্ত রিটার্নিং কমর্তাসহ নির্বাচন কমিশনকে জানানো হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত এ বিষয়ে কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। এভাবে চলতে থাকলে নির্বাচন করা অসম্ভব হয়ে পরছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ মান্নান মাষ্টার, সদস্য সচিব ছিদ্দিকুর রহমান ও পাবনা জেলা ছাত্রদল সভাপতি আমিনুল ইসলাম, সুজানগর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক ছিদ্দিকুর রহমান পিন্টু, যুগ্ম আহবায়ক আশরাফুল বারী বাবু, তাঁতীবন্দ ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, তৃতীয়ধাপে আগামী ৩০ জানুয়ারি পৌরসভাটিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

error: কাজ হবি নানে ভাই। কপি-টপি বন্ধ