পাবনায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নদী পুনঃখনন শুরু

পাবনায় পৌনে ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে নদী পুনঃখনন কাজ শুরু হয়েছে। পাবনা সদর উপজেলার মালিগাছার মনোহরপুর বড়ব্রিজ থেকে আটঘরিয়ার দেবোত্তরের তারাপাশা স্লুইচগেট পর্যন্ত দীর্ঘ ১০.২৪৫ কিলোমিটার এই পুনঃখনন চলবে।

সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পুনঃখননের কাজের উদ্বোধন করেন পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম ফারুক প্রিন্স

দুর্নীতি রোধে ঠিকাদারের কাছ থেকে স্থানীয়দের কাজ বুঝে নেয়ার আহবান জানিয় এমপি প্রিন্স বলেন, নদী পুনঃখনন কাজে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার যেন নয়ছয় ভাবে কাজ করে সরকারের জনকল্যাণমুখি উদ্দেশ্য বাধাগ্রস্ত না হয় এবং দুর্নীতি প্রতিরোধে ঠিকাদারের কাছ থেকে স্থানীয়দের সিডিউল মোতাবেক কাজ বুঝে নিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, নদী খননের ফলে উন্মুক্ত মাছ চাষ, প্রাকৃতিক ভারসাম্য রক্ষা, জলজ প্রাণির অবাধ বিচরণ এবং নদীর দুপাড়ে বনায়ন হলে সার্বিক ভাবেই মানুষের কল্যাণ বয়ে আনবে। তাই সরকারের এই মহৎ উদ্যোগ বাস্তবায়নে দুর্নীতি, অনিয়ম রোধ করে ঠিকাদারদের সঠিক ভাবে কাজ সম্পন্ন করতে হবে।

পাবনা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. রফিকুল আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও উপবিভাগীয় প্রকৌশলী শাহীন রেজার সার্বিক তত্বাবধানে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ, পাবনা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ মোশাররফ হোসেন, চাটমোহর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ মাস্টার।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পাবনা সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক সোহেল হাসান শাহীন, সদর উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান শামসুন্নাহার রেখা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জালাল উদ্দিন বিশ্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা হিরোক, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা কামরুজ্জামান রকি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি খন্দকার আহমেদ শরীফ ডাবলু, মালিগাছা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম, মালিগাছা ইউপি’র সাবেক চেয়ারম্যান উম্মত আলী, বর্তমান চেয়ারম্যান শরীফুল ইসলাম শরীফ, পাবনা বিগবাজারের চেয়ারম্যান আলহাজ তরিকুল ইসলাম, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আরিফুল ইসলাম আরিফ প্রমুখ।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রফিকুল আলম চৌধুরী বলেন, ৬৪ জেলার অভ্যন্তরস্থ ছোট নদী, খাল ও জলাশয় পুনঃখনন প্রকল্প (১ম পর্যায়- প্রথম সংশোধিক) এর আওতায় পাবনা সদরের ডি-৬, এস-৬ এবং ডি-৪, এস-১১ প্রকল্পে মেসার্স সৌরভ ট্রেডার্স ও জাহিদুর রহমান নামের জয়েন্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজটি বাস্তবায়ন করবে। এই কাজের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ২ কোটি ৭৬ লক্ষ টাকা। সোয়া ১০ কিলোমিটার নদী পুনঃখনন কাজে নদীর প্রশস্ত হবে তলদেশ থেকে ৪০ ফুট এবং জায়গা ভেদে ৫/৭ ফুট গভীরতা থাকবে বর্তমান নদীর গভীরতা চেয়ে।

>> পাবনার নিয়মিত ভিডিও পেতে আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করুন এবং বেল আইকনটি চালু করুন। সাবস্ক্রাইব করতে এখানে ক্লিক করুন