পাবনায় জিয়াউর রহমানের শাহাদাতবার্ষিকীতে সভা, দোয়া ও খাদ্য বিতরণ

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৪১তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল এবং দরিদ্রদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়।

সোমবার পাবনা শহরের বাংলাদেশ ঈদগাহ মাঠে মাহফিলে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করা হয়। বেগম খালেদাজিয়ার কারামুক্তি ও সুস্থতা কামনায় বিষেশ দোয়া করা হয়। পাবনার গণমানুষের নেতা সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী এড শামছুর রহমান শিমুল বিশ্বাসের দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করা হয়।

জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস আহমেদ হিমেল রানার আয়োজনে ও পরিচালনায় উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা বিএনপির সাবেক সদস্য শাহাদাত হোসেন। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আজকে আমাদের সাহসী দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসাবে বর্তমান সরকারের স্বৈরাচারী আচরণের বিরুদ্ধে গন আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। দেশে গনতন্ত্র পুনঃ প্রতিষ্ঠা করতে হবে। মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে।

সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য পাবনার কৃতি সন্তান মোঃ ফরহাদ উল্লা। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ছিলেন ক্ষনজন্মা পুরুষ। তিনি দেশের ক্রান্তিকালে বার বার মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন।১৯৭১ সালে তিনি স্বাধীনতার ঘোষণা করে দেশকে যেমন স্বাধীন করেছিলেন। আবার ১৯৭৫ সালে দেশের অবস্থা যখন ভয়াবহ, স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব যখন হুমকির সম্মুখীন হয়েছিল ঠিক তখন দেশের সিপাহি ও জনতা তাকে আবার দেশের দ্বায়িত্বে আসীন করেন। তিনি একদলীয় শাসন বাকশাল বিলুপ্ত করে দেশে গনতন্ত্র ফিরিয়ে আনেন। শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানই বাংলাদেশ কে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা এডঃ ময়নুল হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সভাপতি হান্নান প্রামাণিক,২ নং ওয়ার্ড বিএনপি সাবেক সভাপতি বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ ও সমাজ সেবক হোসাইন কবির রাজ। ৮ নং ওয়ার্ড বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল্লাহ,সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোশাররফ হোসেন মফে, ৭ নং ওয়ার্ড বিএনপি সাবেক সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম সবুজ, জেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক রবিউল ইসলাম মুসাপ, জেলা ছাত্রদলের সি. সহ সভাপতি কমল শেখ টিটু,সাংগঠনিক সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের দপ্তর সম্পাদক এডঃ এস কে সাগর সদর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের আহবায়ক গোলাম মোস্তফা সম্রাট, সদস্য সচিব জাকির হোসেন জ্যাকি,পৌর স্বেচ্ছা সেবক দলের সদস্য সচিব বাদশা হারুনার রশিদ। সদর উপজেলা যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক আজিজুল হক লিটন। জেলা ছাত্র দলের যুগ্ম সম্পাদক মাহবুবুল ইসলাম তরুন,সহ সাধারণ সম্পাদক নাইম শেখ প্রমুখ।

এছাড়া সভায় উপস্থিত হয়ে সভাটি সাফল্যমণ্ডিত করেন পাবনা জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আরিফ চৌধুরী, পাবনা পৌর সভার সাবেক কাউন্সিলর মোসাদ্দেক হোসেন চেংগিস,বি এন পি নেতা সাবেক কাউন্সিলর হাফিজুর রহমান রানা, শাহ জালাল খান মাসুদ,আতিকুর রহমান মোগল,মোকাররম হোসেন মজনু,আব্দুল বারেক, বিপুল হোসেন পিপুল, পৌর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক পারভেজ হোসেন,রাকিব হোসেন তন্ময়,সাদ্দাম সুমন ৮ নং ওরার্ড যুবদলের সভাপতি আরিফ হোসেন,৭ নং ওয়ার্ড যুবনেতা মিঠু, গয়েশপুর ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফ,দোগাছি ইউনিয়ন যুবদল নেতা মিরাজুল ইসলাম, আমানত হোসেন, কাজি সম্রাট,

অনুষ্ঠানটি সফল করার জন্য আয়োজক হিমেল রানা উপস্থিত নেতা কর্মী ও সমর্থক সকলেত প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

-বিজ্ঞপ্তি