পাবনায় করোনায় নেগেটিভ আসা রোগীর মৃত্যু

মঙ্গলবার সকালে করোনা উপসর্গ নিয়ে এক রোগীর মৃত্যু হয়েছে। মৃত ব্যাক্তি মৎস আড়ৎদার আসলাম হোসেন পাবনা শহরের দক্ষিন রাঘবপুর এলাকার মৃত লোকমান হোসেনের ছেলে। তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর। করোনা উপসর্গের কারনে উপজেলা প্রশাসন তার বাড়ি ৫ এপ্রিল লকডাউন করে তার নমুনা নিয়ে সনাক্তকরণের জন্যে রাজশাহী প্রেরণ করে স্বাস্থ্য বিভাগ। পরীক্ষা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় ১১ এপ্রিল তার বাড়ি লকডাউন তুলে নেয় প্রশাসন বলে জানান পাবনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন।

এলাকাবাসী আমিনুল হক টিপু জানান, করোনা উপসর্গ থাকলেও তার পরীক্ষায় নেগেটিভ রেজাল্ট আসে রাজশাহী থেকে। তবে স্থানীয় লোকজন রাজশাহীতে করোনা পরীক্ষা নিয়ে সন্দেহ করছেন। করোনা আতংকে আছেন এলাকাবাসী। পরিবার থেকে যেটা আমরা জানতে পেরেছি, তা হলো নিহত ব্যাক্তি দীর্ঘদিন ধরে এজমা, হার্ট ও সম্প্রতি নিউমোনিয়া হয়ে ১০ দিন পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ছিল।

তবে পরীবারের পক্ষ থেকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন বলেন, স্থানীয় প্রশাসন আমাদের বাড়ি লকডাউন করে। ফলে এলাকায় আতংক ছড়িয়ে পরে। আমাদের সাথে প্রতিবেশীরাও বিরুপ আচরণ করতে শুরু করেন। কিন্তু স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে বার বার সহযোগিতা চেয়েও আমরা তা পাইনি। বিনা চিকিৎসায় আসলামের মৃত্যু হয়েছে। 

এ সব অভিযোগ অস্বীকার করে পাবনার সিভিল সার্জন ডা: মেহেদী ইকবাল জানান, সে করোনায় মারা যায়নি, তবে অন্য কোন রোগে মারা গেছেন সম্ভবত। তার করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ পাওয়া যায়।