পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে পাবনার রাজনীতি

আসন্ন পাবনা পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে পাবনার রাজনীতি । প্রকাশ্যেই দ্বিধাবিভক্ত হয়েছে পড়ে পাবনা জেলা আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা।

এক পক্ষ দলীয় প্রতীক নৌকার মেয়র প্রার্থী আলী মর্তুজা বিশ্বাস সনির পক্ষে অপর পক্ষ নাগরিক মঞ্চের ব্যানারে স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) মেয়র প্রার্থী শরিফ উদ্দিন প্রধানের পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন। দীর্ঘদিনের অপ্রাপ্তি ও ক্ষোভ থেকে আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে জেলা আওয়ামীলীগ দ্বিধাবিভক্ত হয়ে পড়েছে।

দুই পক্ষই গত সোমবার থেকে শুরু হওয়া প্রচার-প্রচারণায় শক্ত ভাবে মাঠে নেমেছেন। পাবনার চেম্বার্স অব কমার্সের সিনিয়র সহ-সভাপতি সনির পক্ষে মাঠে নেমেছেন ব্যবসায়ী।

এদিকে জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি শরিফ উদ্দিন প্রধানের পক্ষে মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়ে ‌’নাগরিক মঞ্চ’ একটি সংগঠন তৈরি করেছেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী অংশ।

নির্বাচনে ৫ মেয়র প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। বাকি তিনজন হলেন-  বিএনপির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সাবেক জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাবেক এডওয়ার্ড কলেজের ভিপি নূর মোহম্মদ মাসুম বগা, জাতীয় পার্টি থেকে চৌধুরী মোহম্মদ মাহাবুবুল হক, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আবু বক্কর সিদ্দীক।

এছাড়া জেলা যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ২০১৫ সালে নৌকার প্রার্থী মো. রকিব হাসান টিপু এবার মনোনয়ন বঞ্চিত হয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে জমা দিলেও শেষ পর্যন্ত তিনি সরে গেছেন। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জমা দেয়া পাবনা পৌর জামায়াতের সেক্রেটারি রকিব উদ্দিনের মনোনয়ন বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন।

পাবনা পৌরসভা ১৫টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। মোট ভোটার রয়েছে ১ লাখ ১২ হাজার ২৪৪ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৫৮ হাজার ৪০ জন আর নারী ভোটার ৫৪ ২০৪ জন। সাধারণ কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন ৭৪ জন আর সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন জেলা নির্বাচন অফিসের তথ্য মতে জানা গেছে।