পাবনার বিশিষ্ট সাংবাদিক আব্দুল মজিদ দুদু‘র আজ পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী

পাবনাবার্তা ২৪ ডটকমের উপদেষ্টা, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি, পাবনা শাখার সভাপতি, পাবনা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী সদস্য, দৈনিক নয়াদিগন্ত ও বার্তা সংস্থা ইউএনবি’র পাবনাস্থ স্টাফ রির্পোটার আব্দুল মজিদ দুদু‘র আজ পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী।

আব্দুল মজিদ দুদু দীর্ঘদিন ধরে সাংবাদিকতা পেশার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। সাংবাদিক আব্দুল মজিদ দুদু ১৯৮১ সালে দৈনিক সংগ্রামের পাবনা প্রতিনিধি হিসেবে সাংবাদিকতা শুরু করেন। পাশাপাশি ১৯৯৭ সাল থেকে ইউএনবির পাবনা প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। ২০০৫ সালে প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে দৈনিক নয়া দিগন্তের পাবনা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। ২০০১ থেকে ২০০৭ সাল পর্যন্ত বিটিভির পাবনা প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করেন। কিছুদিন বাংলাদেশ বেতারেও কাজ করেছেন। দিগন্ত টিভি প্রতিষ্ঠার পর থেকে তিনি পাবনা প্রতিনিধি ছিলেন। বার্তা সংস্থা পিপের সম্পাদক ছিলেন তিনি।

এছাড়া পাবনা চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক এবং পাবনা জেলা সাংবাদিক সমিতির সভাপতি, পাবনা প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী সদস্য ছিলেন। মর্জিনা লতিফ ট্রাস্টের উপদেষ্টাও ছিলেন তিনি। কর্ম জীবন শুরু করেছিলেন জাগির হোসেন একাডেমির শিক্ষকতা দিয়ে। দিশারী বই বিতান নামে বইয়ের দোকানও দিয়েছিলেন কিছু দিন। ক্বারী সৈয়দ আহমদ স্মৃতি পাঠাগারের সভাপতি। এছাড়া তিনি বহু সামাজিক কর্মকাণ্ডে সাথে জড়িত ছিলেন।

জেলার বিশিষ্ট এই সাংবাদিক পাবনার জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাবনাবার্তা ২৪ ডটকমের যাত্রাকাল থেকেই অন্যতম উপদেষ্টা ছিলেন।

২ ছেলে ও  ২ মেয়ের জনক আব্দুল মজিদ দুদুর বাবা মরহুম ক্বারী সৈয়দ আহাম্মদ আলী। বাড়ি সদর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে শহরের পাথরতলা এলাকার চারতলা মোড়ে পরিবার নিয়ে ভাড়া বাসায় থাকতেন।

পাবনা প্রেসক্লাবের সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ জানান, বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের কারণে এবার বিশিষ্ট সাংবাদিক আব্দুল মজিদ দুদু‘র পঞ্চম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে পাবনা প্রেসক্লাব কোন কর্মসুচি নেইনি। তবে শনিবার সকালে আরিফপুর কবরস্থানে তার কবর জেয়ারত করা হবে।