‘স্বপ্নের নীড়’ পেলেন পাবনার ১০৮৬ গৃহহীন পরিবার

মুজিববর্ষ উপলক্ষে পাবনার ১ হাজার ৮৬ ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার -কে জমি ও গৃহ প্রদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পাবনাসহ দেশের ৪৯২টি উপজেলার প্রায় ৭০ হাজার পরিবারকে পাকা ঘরসহ বাড়ি হস্তান্তর করেন তিনি।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজকে আমার অত্যন্ত আনন্দের দিন। গৃহহীন পরিবার -কে গৃহ দিতে পারছি, এটি আমার সবচেয়ে আনন্দের। আমার বাবা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মানুষের কথাই ভাবতেন। আমাদের পরিবারের লোকদের চেয়ে তিনি গরীব অসহায় মানুষদের নিয়ে বেশি ভাবতেন এবং কাজ করেছেন। এই গৃহ প্রদান কার্যক্রম তারই শুরু করা।’

মুজিববর্ষ উপলক্ষে আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর আওতায় প্রায় নয় লাখ মানুষকে পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে পাকাঘর উপহার দেয়া হচ্ছে। প্রথম পর্যায়ে ঘর পেল প্রায় ৭০ হাজার পরিবার। আগামী মাসে আরও ১ লাখ পরিবার বাড়ি পাবে। অনুষ্ঠানে আশ্রয়ন প্রকল্পের তৈরি ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়।

পাবনা সদর ৪৪৯, সাথিঁয়া ৩৭২, আটঘরিয়া ৮৫, ফরিদপুর ৫০, ঈশ্বরদী ৫০, চাটমোহর ৩০, সুজানগর ২০, বেড়া ২০ এবং ভাঙ্গুড়া উপজেলায় ১০ টি পরিবার এই স্বপ্নের নীড় পেলেন।

পাবনা জেলা প্রশাসন সুত্রে জানা গেছে, মুজিব জন্মশতবর্ষ উপলক্ষে জেলার ৯ উপজেলার ১ হাজার ৮৬ টি পরিবার গৃহহীন আশ্রয়ন প্রকল্পে দুই শতক জমিসহ সেমি পাকাঘর পাবে। ইটের দেয়াল, কংক্রিটের মেঝে এবং রঙিন টিনের ছাউনি দিয়ে তৈরি দুইটি কক্ষের আবাসন। আরও থাকছে একটি রান্নাঘর, টয়লেট ও সামনে খোলা বারান্দা।ইউপি চেয়ারম্যানরা ছিন্নমূল ও ভূমিহীন পরিবারের তালিকা পাঠান সংশ্লিষ্ট দপ্তরে। সেসব তথ্য উপজেলা ভূমি অফিস থেকে জমি-বাড়ি নেই এমন পরিবারের তালিকা যাচাই-বাছাই করে পাঠানো হয় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে।

ঘরগুলো যাতে টেকসই এবং মানসম্মত হয় সেজন্য জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের মনিটরিং কমিটি নিয়মিত তদারকি করেছেন।