পাবনায় আজও ভেঙে গেল সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড, এক উপজেলাতেই আড়াইশ!

হঠাৎ করেই পাবনায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের হার ঊর্ধ্বমুখি। ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে আগের দিনের রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড তৈরি হচ্ছে।

আগের যেকোনও দিনে চেয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সর্বোচ্চ পর্যায় পৌছেছে। এছাড়াও আজ এক  উপজেলাতেই সংক্রমনের সংখ্যা প্রায় আড়াইশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনা জেলায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে আরও ৩৪৮ জন। যা এযাবতকালের সর্বোচ্চসংখ্যক আক্রান্ত। গতকাল ৮ জুলাই আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৭৭ জন। এনিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬ হাজার ৩৪৩ জনে।

শুক্রবার (৯ জুলাই) দুুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয়ের এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আক্রান্ত ও শনাক্তের হারের দিক দিয়ে আজও শীর্ষে ঈশ্বরদী উপজেলা। এই উপজেলাতেই আক্রান্ত ২২৫ জন।

এছাড়াও পাবনা সদরে ৩১ জন, সাঁথিয়ায় ২৪ জন, আটঘরিয়ায় ২০ জন, সুজানগরে ১৬ জন, ভাঙ্গুড়ায় ১১ জন, বেড়ায় ৯ জন, চাটমোহরে ৭ জন ও ফরিদপুরে ৫ জন।

নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় পাবনার সুজানগরে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

ফলে স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্য মতে, এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে পাবনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনায় করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও ৭৬ জন। ফলে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৮৭৬ জন। এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ১৫৮ জন। বাকিরা বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বাংলাদেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগীর শনাক্ত হলেও পাবনা জেলাতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ৯ মে। জেলার চাটমোহর উপজেলার নারায়ণগঞ্জ ফেরত এক শ্রমিকের শরীরের প্রথম এই ভাইরাস শনাক্ত হয়।