দাবি মানেনি, পাবনা-ঢাকা সহ সব রুটে বাস ধর্মঘট

আগের দাবি না মানায় ৬ দফা দাবিতে বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) ভোর থেকে পাবনা-ঢাকা সহ সমগ্র পাবনার সকল রুটে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলবে। ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম শেষে দাবি আদায়ে ব্যর্থ হয়ে পাবনা জেলা বাস ট্রাক মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদ এই পরিবহন ধর্মঘটের ঘোষণা দেন।

এদিকে কয়েকদিন ধরে চলা সীমিত ধর্মঘটের ফলে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চরমে পৌছেছে। বিশেষ করে ঢাকাগামী যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বুধবার (৩০ ডিসেম্বর) দুপুরে পাবনা জেলা বাস ট্রাক মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের আহবায়ক ও জেলা মোটর মালিক গ্রুপ সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব জানান, কোন কারণ ছাড়াই দীর্ঘ তিন চার বছর ধরে সিরাজগঞ্জ জেলার শাহজাদপুরের বাস মালিক ও শ্রমিকরা পাবনার কোচ ও বাস ড্রাইভার দের মাঝে মধ্যেই বিনা কারণে মারধর করে আসছে।

এ ছাড়া শাহজাদপুরের উপর দিয়ে বাস ট্রাক চলাচলে বাধা সৃষ্টি এবং পাবনার মালিক শ্রমিকদের কাছ থেকে জোরপুর্বক চাঁদা আদায় করছে। পাবনার মালিক শ্রমিকরা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে এর প্রতিকার চেয়ে কোন ফল পায়নি।

তিনি আরো বলেন, আমরা এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান সহ ৬ দফা দাবী আদায়ে ৭২ ঘন্টার আল্টিমেটাম দিয়ে ছিলাম, দাবী পুরুন না হওয়ায় আজ বৃহস্পতিবার ভোর থেকে পাবনা-ঢাকা সহ পাবনা জেলার সকল রুটে সকল প্রকার যানবাহন ধর্মঘট চলবে।

পাবনা জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারন সম্পাদক আবুল এহসান খান রেয়ন জানান, সিরাজগঞ্জ ও শাহজাদপুরের বাস মালিক ও শ্রমিকদের সাথে পাবনার বাস মালিক ও শ্রমিকরা দফায় দফায় বৈঠক করেও কোন সমাধান করা যায় নাই। শাহজাদপুরের বাস মালিক ও শ্রমিকরা মহাসড়ক দিয়ে পাবনার সকল যানবাহন চলাচলে বাধা সৃষ্টি করছে। জোরপুর্বক চাঁদা আদায় ও পরিবহন শ্রমিকদের মারপিট করছে। আমরা এ সমস্যার স্থায়ী সমাধানে ধর্মঘটে যেতে বাধ্য হয়েছি।

তিনি আরও বলেন, প্রয়োজনে উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গের মোটর মালিক শ্রমিকদের সাথে নিয়ে আরও বৃহত্তর কর্মসূচী দেয়া হবে।