সাহসী তরুণীর ‘আল্লাহু আকবর’ ধ্বনীতেই কম্পিত পুরো বিশ্ব!

বোরখা পরা এক ছাত্রীর দিকে এগিয়ে আসছেন হিন্দুত্ববাদী সাম্প্রদায়িক একদল যুবক। দিচ্ছেন উসকানিমূলক ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান। তাতে পিছু না হটে একাই পালটা এগিয়ে আসেন ওই তরুণীর। দিতে থাকেন ‘আল্লাহু আকবর’ স্লোগান।

এই সাহসী তরুণীর আল্লাহু আকবর ধ্বনীতেই কম্পিত পুরো বিশ্ব। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ধ্বনির ভিডিও। চরমপন্থি এমন হিন্দুত্ববাদীদের সামনে ওই নারীর এমন সাহসী ধ্বনিতে প্রশংসায় ভাসছে পুরো বিশ্বে।

গণমাধ্যমে প্রকাশ, হিজাব পরা এক তরুণী তার স্কুটার রেখে কলেজ ভবনের দিকে এগোতেই ‘গেরুয়া চাদর’ পরা প্রচুর সংখ্যক যুবক ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দিতে দিতে তার দিকে ধেয়ে যায়। এ সময়ে মুসলিম ছাত্রীটিকেও ঘুরে দাঁড়িয়ে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে চিৎকার করতে দেখা যায়। এরপরে তিনি কলেজ ভবনের দিকে এগোলে ওই ‘গেরুয়া চাদর’ পরা হিন্দুত্ববাদী যুবকরা তাকে অনুসরণ করতে থাকে। ওই ছাত্রীকে এরপরে ক্যামেরার সামনে চিৎকার করে এই বিষয়ে অভিযোগ জানাতে দেখা যায়। কলেজ কর্তৃপক্ষের লোকজন ওই স্লোগান দেওয়া যুবকদের থামিয়ে দিয়ে, ওই ছাত্রীকে কলেজে যেতে বলেন।

কয়েকদিন ধরেই কিছু উগ্রবাদী হিন্দু যুবকরা মেয়েদের পরখা বা হিজাব পড়ে স্কুল-কলেজে আসতে বাধা দিচ্ছেন। তবে তাদের ভয় উপেক্ষা করে হিজাব পরে কর্ণাটকের একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উপস্থিত হন মুসকান নামের এক ছাত্রী। প্রতিষ্ঠানটিতে প্রবেশ করার পর ওই ছাত্ররা তাকে ভয়-ভীতি দেখানোর চেষ্টা করে।

কিন্তু মুসকান একা থাকা স্বত্ত্বেও সেই ছাত্রদের সামনে প্রতিবাদ করে। পরবর্তীতে শিক্ষকরা এসে তাকে সরিয়ে দেয়।

গণমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ওই ছাত্রী বলেন, আমি কলেজে যাচ্ছিলাম। কিন্তু বোরকা পরে থাকায় আমাকে কলেজে প্রবেশ করতে দিচ্ছিল না। তারা জয় শ্রীরাম বলে স্লোগান দিচ্ছিল। আমি একটুও ভয় পাইনি। আমিও আল্লাহু আকবার বলে স্লোগান দেই। পরে শিক্ষকরা এসে আমাকে সরিয়ে দেন।

এদিকে প্রায় এক মাস আগে কর্ণাটকের উদুপুরের পিইউ গার্লস কলেজে প্রথম হিজাব নিয়ে ঘটনা ঘটেছিল। ওই কলেজটির ছাত্রীরা হিজাব পরে শ্রেণিকক্ষে অংশ নেওয়ার জন্য সংগাম চালিয়ে যাচ্ছে। কলেজটির একজন ছাত্রী হিজাব, হেডস্কার্ফ পরে শ্রেণিকক্ষে অংশ নিতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন।

এদিকে, রাজ্যটিতে বিভিন্ন স্থানে মুসলিম ছাত্রীদের হিজাব পরিধান নিয়ে তীব্র বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। ওই ইস্যুতে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে তিন দিনের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

error: কাজ হবি নানে ভাই। কপি-টপি বন্ধ