দুই সন্তানের জননী চাচিকে নিয়ে উধাও ইউপি মেম্বার

ফরিদপুরের সালথা উপজেলার মাঝারদিয়া ইউনিয়নে নুরুল আলম নামের এক ইউপি মেম্বার পরকীয়ার জেরে চাচিকে (২৪) নিয়ে পালিয়েছেন। ওই তরুণী দুই সন্তানের জননী। মঙ্গলবার (৭ জুন) রাত ২টার দিকে তারা পালিয়ে যান। বুধবার এ ঘটনায় ওই গৃহবধূর স্বামী সালথা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউপি মেম্বার নুরুল আলমের সম্পর্কে চাচি হন ওই তরুণী। প্রতিবেশী হওয়ার সুবাদে দীর্ঘদিন ধরে ওই তরুণীর স্বামীর বাড়িতে যাওয়া আসা করতেন নুরুল। এ সুযোগে ওই তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে গড়ে ওঠে ওই মেম্বারের। পরে মঙ্গলবার রাতে নুরুলের হাত ধরে পালিয়ে যান তিনি।

এদিকে ছোট ছোট দুটি কন্যাসন্তান রেখে মায়ের উধাওয়ের খবরে বড় মেয়ে (৯) ও ছোট মেয়েকে (৫) নিয়ে বিপাকে পড়েছেন জাহিদুল।

জানা গেছে, ওই তরুণী যাওয়ার সময় নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার যা কিছু ছিল সব নিয়ে গেছেন। ঘরে কোনো অর্থ নেই। এদিকে ছোট কন্যা মায়ের শোকে অনবরত কান্না করছে, আর বড় মেয়ের অসহায় চাহনির কাছে বাবা অসহায় হয়ে পড়েছেন।

ওই তরুণীর স্বামী বলেন, আমার স্ত্রী রাত ২টার দিকে টয়লেটে যাওয়ার কথা বলে ঘর থেকে বের হন। আসতে দেরি হওয়ায় আমি তাকে খুঁজতে বের হয়ে দেখি সে টয়লেটে নেই। পরে পরিবারের সবাই মিলে বাড়ির আশপাশে খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাইনি।

সালথা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আওলাদ হোসেন বলেন, এ বিষয়ে ওই গৃহবধূর স্বামী একটি নিখোঁজ-সংক্রান্ত সাধারণ ডায়েরি করেছেন। এ ঘটনায় তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, ১০ বছর আগে উপজেলার গট্টি ইউনিয়নের সিংহপ্রতাপ গ্রামের ওই তরণীর বিয়ে হয়।