করোনা উপসর্গে পাবনায় নারী সাংবাদিকের মৃত্যু 

পাবনা থেকে প্রকাশিত স্থানীয় দৈনিক স্বতঃকন্ঠের বার্তা সম্পাদক মাহমুদা নাসরিন করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।  ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নালিল্লাহি রাজেউন।

রবিবার (২৭ জুন) সন্ধ্যা সাড়ে ৭ টার দিকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন।

তিনি বেশ কয়েকদিন করোনা উপসর্গ নিয়ে বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছিলেন। রবিবার হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাঁকে পাবনা জেনারেল হাসপতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন তিনি মৃত্যু বরণ করেন।

মৃত্যুকালে তিনি ১ ছেলে , ১ মেয়ে রেখে গেছেন। তিনি পাবনা সদর উপজেলার টিকুরী গ্রামের মৃত লিয়াকত আলীর স্ত্রী। তিনি পাবনা পৌরসভা এলাকার  গাছপাড়ায় নিজ বাড়িতে বসবাস করতেন।

তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন পাবনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এবিএম ফজলুর রহমান ও সাধারণ সম্পাদক সৈকত আফরোজ আসাদ, দৈনিক বিবৃতির সম্পাদক ও প্রকাশক ইয়াছিন আলী মৃধা রতন, পাবনা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি হাবিবুর রহমান স্বপন, সাধারণ সম্পাদক কাজী মাহমুদ মোর্শেদ বাবলা, পাবনা বার্তা ২৪ ডটকমের প্রধান এডমিন শামসুল আলম।

আরও পড়ুন>> ২৪ ঘন্টায় এযাবতকালের সর্বোচ্চ আক্রান্ত পাবনায়!

আগের যেকোনও দিনে চেয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ সর্বোচ্চ পর্যায় পৌছেছে। এছাড়াও আজ পাবনায় রাজশাহী বিভাগের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ আক্রান্ত হয়েছেন।

সম্প্রতি সময়ে আক্রান্তের দিক দিয়ে করোনার অন্যতম হটস্পট নওগাঁ, চাপাইনবাবগঞ্জ, নাটোর ও বগুড়ার মতো জেলাগুলোকে পেছনে ফেলেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনা জেলায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে আরও ১৩৫ জন। যা গতকালের চেয়ে ৩দিনগুলোর চেয়ে বেশি। আগেরদিন শনিবার জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৪৩ জনে। এনিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ হাজার ১৪০ জনে।

রবিবার (২৭ জুন) দুুপুরে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয়ের এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

নতুন করে গত ২৪ ঘন্টায় পাবনায় এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি। ফলে স্বাস্থ্য বিভাগের দেয়া তথ্য মতে, এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে পাবনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় পাবনায় করোনা ভাইরাস থেকে সুস্থ হয়েছেন আরও ১৪ জন। ফলে মোট সুস্থ রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৩ হাজার ৫০২ জন। এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৯৫জন। বাকিরা বাড়িতেই চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বাংলাদেশে গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগীর শনাক্ত হলেও পাবনা জেলাতে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ৯ মে। জেলার চাটমোহর উপজেলার নারায়ণগঞ্জ ফেরত এক শ্রমিকের শরীরের প্রথম এই ভাইরাস শনাক্ত হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজশাহী বিভাগে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বিভাগে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৮২৬ জন।

এ দিন নমুনা পরীক্ষায় বিভাগে নতুন ৯৬২ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। সর্বোচ্চ আক্রান্ত রাজশাহীতে ৩২৫ জন। এরপরই পাবনা। বিভাগে এখন মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫২ হাজার ৮৭৯ জন। নতুন করে সু্স্থ হয়েছেন ৭৫৭ জন। মোট সুস্থ্য রোগীর সংখ্যা ৩৭ হাজার ৯৪৭ জন। বিভাগে এ পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৫ হাজার ৬০০ জন কোভিড-১৯ রোগী। বাকীরা বাড়িতে চিকিৎসা নিচ্ছেন।