করোনার টিকা রফতানিতে ভারতের নিষেধাজ্ঞা, জানে না বাংলাদেশ?

সিরাম ইনস্টিটিউট কর্তৃক ভারতে উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রোজেনকার করোনার ভারতের নিষেধাজ্ঞা। অনুমোদনের কয়েকদিন পর ভ্যাকসিন রফতানিতে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল ভারত সরকার।

রবিবার (৩ জানুয়ারি) এ ঘোষণা দেওয়া হয়। এর ফলে দরিদ্র দেশগুলোর ভ্যাকসিন পেতে আরও কয়েক মাস অপেক্ষা করতে হবে। সিরাম ইনস্টিটিউটের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদ সংস্থা এপি

এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশ শুধুমাত্র এই ভ্যাকসিনের ওপর নির্ভরশীল। ফলে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের সঙ্গে চুক্তি থাকা সত্ত্বেও বাংলাদেশকে এই টিকা পেতে অপেক্ষায় থাকতে হবে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন বলেছেন, আনুষ্ঠানিকভাকে এই রপ্তানি ভারতের নিষেধাজ্ঞা বিষয়টি জানেন না।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকসহ সরকারের মন্ত্রীরা বলে আসছিলেন, জানুয়ারির শেষ নাগাদ কিংবা ফ্রেব্রুয়ারিতে টিকা পাবে বাংলাদেশ।

রবিবার সিরাম ইনস্টিটিউটের সিইও আদর পুনাওয়ালা এপিকে বলেন, কয়েক মাসের জন্য ভ্যাকসিন রফতানির অনুমতি দেবে না ভারত। ভারতীয়রা যাতে যথাযথভাবে ভ্যাকসিন পায় সেজন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত,  ভারতের এক কোটিরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যা বিশ্বের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ। দেশটিতে প্রায় দেড় লাখ লোক করোনায় মারা গেছেন।

করোনা ভ্যাকসিন বণ্টন পরিকল্পনার শুরুতেই ভারত ৩০ কোটি জনগণকে টিকা দিতে চায়। যার মধ্যে অগ্রাধিকার পাচ্ছেন স্বাস্থ্যকর্মী পুলিশসহ সামনের সারির যোদ্ধারা