করোনায় অসহায় মানুষের পাশে পাবনার মানব কল্যাণ ট্রাস্ট

দেশের বিভিন্ন জেলার বিভিন্ন এলাকার অসহায় প্রতিবন্ধী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের একত্রিত করে শিক্ষা ব্যবস্থা ও জীবনযাপনের লক্ষ্যে ২৭ বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে পাবনার সিংগা মানবকল্যাণ ট্রাস্ট।

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া অসহায়, দরিদ্র ও দুস্থ মানুষের পাশে খাদ্য ও নগদ টাকা সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে স্বেচ্ছাসেবী এই প্রতিষ্ঠানটি।

এছাড়াও সমাজের অসহায়, দরিদও ও তালাকপ্রাপ্ত মহিলা, বিধবা, বয়স্ক মানুষদের প্রয়োজনীয় আর্থিক সহযোগিতা এবং চিকিৎসা সেবাসহ খাদ্য পন্য নিয়ে পাশে রয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী, শারীরিক প্রতিবন্ধীদের পড়ালেখার সুযোগের পাশাপাশি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে নানা সামাজিক কর্মকান্ডও পরিচালনা করা হচ্ছে। ট্রাস্টের নিজ অর্থায়নে কয়েকদিন আগেই একটি অসহায় শিশুর পায়ের অপারেশন সম্পন্ন করা হয়।

গতকালও ট্রাস্টের পক্ষ থেকে পাবনা শহরের পৌর এলাকার ১০ নং ওয়ার্ডে ষাটার্ধো বেশ কিছু নারী পুরুষের মাঝে খাদ্য ও অর্থ সহায়তা করা হয়। খাদ্য সামগ্রী বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন ট্রাস্টের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক মোঃ আবুল হোসেন, ভাইস চেয়ারম্যান ড. মোঃ আলমগীর হোসেন, শিক্ষক ক্বারী আব্দুল মালেক, মাওলানা রহমতুল্লাহ ও মোঃ হাফিজুল ইসলাম।

ট্রাস্টের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন বলেন, মানুষের নানা ধরণের সহযোগিতায় এই ট্রাষ্ট পরিচালিত হচ্ছে। ভালোবাসার মানুষগুলো ও কিছু দানশীল প্রতিষ্ঠানের আর্থিক সহযোগিতা পেয়ে এই প্রতিষ্ঠান থেকে প্রতিবন্ধী ও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের কল্যানে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বলেন, মহামারী করোনার কারণে অনেক মানুষ চোখের সামনে অসহায় হয়ে পড়েছে। তাদের দিক বিবেচনা করেই ট্রাস্টের পক্ষ থেকে যতসামান্য সহযোগিতা করা হচ্ছে। এই সহযোগিতার কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানান প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আবুল হোসেন।