এবার সাঁথিয়ায় ৬২৪ বস্তা চাউল আত্মসাৎ করে কালোবাজারে বিক্রি

পাবনার সাঁথিয়ায় তালিকায় নাম থাকার পরেও হত-দারিদ্রদের স্বল্প মুল্যের চাল না দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ডিলারের বিরুদ্ধে। গত ৪ বছর এভাবে ১৩ দরিদ্র মানুষের চাল না দিয়ে ৬২৪ বস্তা চাল আত্মসাত করা হয়েছে বলে জেলা প্রশাসক ও র‌্যাব বরাবর অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, সাঁিথয়া উপজেলা কাশিনাথপুর ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের স্বল্প মুল্যের চালের ডিলার আঃ রবের বিরুদ্ধে হত-দারিদ্রদেরকে চাল না দেবার অভিযোগ উঠেছে। ওয়ার্ডের ১৩ জন অভাবীকে ৪ বছর ধরে চাল দেওয়া থেকে বঞ্চিত করেছে আঃ রব।

সোমবার সকালে পাবনা জেলা প্রশাসক ও র‌্যাব অফিসে  নিকট দেওয়া অভিযোগে জানাযায়, কল্যাণপুর গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে আব্দুল আজিজ (সিরিয়াল নং১৭১৬) ও একই গ্রামের আজিজের স্ত্রী ফাতেমা খাতুন(সিরিয়াল নং১৭১৯), আঃ ফকিরের ছেলে রশিদ(সিরিয়াল নং১৬৬০), মহাম্মদ আলীর ছেলে আমিরুল (সিরিয়াল নং১৬৬১),সামাদের ছেলে আমিনুল(সিরিয়াল নং১৬৯২), বাহেজ আলীর ছেলে লাল মিয়া(সিরিয়াল নং১৭২২), তয়জলের ছেলে বজলুর রশিদ(সিরিয়াল নং১৭৪৩), আজাহারের ছেলে কোরক, বছির মোল্লার ছেলে মানিক মোল্লা, আলমগীরের ছেলে মনিরুজ্জামান, শহিদুলের স্ত্রী ইনসান, গনি প্রাইমানিকের  স্ত্রী মরিয়ম ও জব্বারের স্ত্রী শিমুতের নামের চাউল উত্তোলন করে কালো বাজারে বিক্রয় করত ডিলার রব।

অভাবীরা চাউল আনতে গেলে নকল তালিকা বের করে ভুয়া সিরিয়াল দেখিয়ে তাদের তাড়িয়ে দিত ডিলার। দীর্ঘ ৪ বছর ধরে ১৩ জন অভাবীর প্রায় ৬২৪ বস্তা চাউল আত্মসাত করে কালো বাজারে বিক্রয় করেছেন রব।

ভুক্তভোগীদের দাবী তাদের মত আরও অনেকেই তালিকায় নাম থাকার পরও চাউল থেকে বঞ্চিত হয়েছে।

ডিলার রব জানান, আমার নিকট অভিযোগকারীদের কেউ চাউল নিতে আসেনি। দীর্ঘ দিন তাদের চাউল থেকে বঞ্চিত করে সে চাউল কি করেছেন জানতে চাইলে ফোনের সংযোগ কেটে দেন।

ইতোপূর্বে ভুক্তভোগীদের লিখিত অভিযোগের পর সাঁথিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ার বিষয়টি দেখতে নির্বাহী অফিসার এসএম জামাল আহমেদকে নির্দেশ দেন। অভাবীরা বিচার না পেয়ে জেলা প্রশাসক ও র‌্যাব কমান্ডার বরাবর পূর্ণরায় অভিযোগ করেন।

এব্যাপারে সাঁথিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ দেলোয়ারের নিকট মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমি চেষ্টা করেছি কিন্তু সমাধান করতে পারিনি। আমার ধারণা  চেয়ারম্যান অথবা মেম্বারের মধ্যে সমস্যা রয়েছে যে কারণে অভাবীরা চাউল পাচ্ছে না।