ঈশ্বরদীতে বোরকা পার্টির খপ্পরে পড়ে ২ শিক্ষিকার সর্বনাশ

করোনাকালীন সময়ে ঈশ্বরদীতে হঠাৎ করেই সংঘবদ্ধ পতারক বোরকা পার্টির দৌরাত্ব বেড়েছে। চার দিনের ব্যবধানে একাধিক ঘটনায় বোরকা পার্টির খপ্পড়ে পড়ে ২ শিক্ষিকা লক্ষাধিক টাকা খুইয়েছেন। পুলিশ ব্যাপক তৎপরতা চালিয়েও এই চক্রকে এখনও চিহ্নিত করতে পারেনি।

বৃহস্পতিবার দুপুর বারোটার পর ঈশ্বরদী পৌর মার্কেটের সামনে মধ্য অরণকোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিকিা আায়েশা সিদ্দিকা (৫০) স্কুল সংস্কারের সরকারের বরাদ্দ ১ লাখ ৮৪ হাজার টাকা সোনালী ব্যাংক থেকে উত্তোলন করেন।

এই টাকা সাইড ব্যাগে নিয়ে কেনাকাটার জন্য ঈশ্বরদী পৌর মার্কেটের সামনে গেলে ৪/৫ জন বোরকা পরিহিত সংঘবদ্ধ চক্র পণ্য কেনার উছিলায় তাঁকে ঘিরে ধরে। শিক্ষিকা আয়েশা ভীড় ঠেলে বের হয়ে কিছু দুর গিয়ে সন্দেহ হলে সাইড ব্যাগের দিকে তাকিয়ে দ্যাখেন ব্যাগের চেইন খোলা। ভেতরে হাত দিয়ে কোন টাকা নেই দেখতে পান। সব টাকাই বোরকা পার্টি হাতিয়ে নিয়েছে। পরে অনেক খোঁজাখুজি করেও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি।

এর আগে গত রবিবার একই কায়দায় ঈশ্বরদী ফতেহ মোহম্মদপুরের ব্রাক স্কুলের শিক্ষিকা হোসনে আরা পলি (৪৫) জনতা ব্যাংক থেকে টাকা তুলে যাওয়ার পথে কৌশলে তার ব্যাগ থেকে ২০ হাজার টাকা হাাতিয়ে নেয় বোরকা পার্টি।

ঈশ্বরদী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সেখ নাসীর উদ্দিন এঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন। অচিরেই এই অপতৎপরতা বন্ধ হবে এবং বোরকা পার্টির সদস্যদের গ্রেফতার করা হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।