• আজ
  • মঙ্গলবার,
  • ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
  • |
  • ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ


Text_2

দুই ছাত্রীকে গণধর্ষণের দায়ে গ্রেফতার ৫, বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

প্রকাশ: ২১ আগ, ২০১৭ | রিপোর্ট করেছেন নিজস্ব সংবাদদাতা

পাবনার সুজানগরে দুই স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষনের পর ধর্ষনের ভিডিও চিত্র ইন্টার নেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ঘটনায় আদালতে মামলা দায়েরের পর পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এদিকে ঘটনার সাথে জড়িতদের শাস্তির দাবী ও ঘটনার প্রতিবাদে সোমবার (২১ আগস্ট) মানববন্ধন ও সড়ক অবরোধ করে ধর্ষনের শিকার শিক্ষার্থীর সহপাঠিরা।

সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওবায়দুল হক জানান, রবিবার (২০ আগস্ট) দিনগত রাতে ও সোমবার (২১ আগস্ট) সকালে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে পাঁচ জনকে গ্রেফতার করা হয়। তারা হলো চর ভবনীপুর মাষ্টার পাড়ার হযরত আলী, আল আমিন, মিঠুন, পাংকু ও সোহেল রানা।

অপরজন শাহিনকে গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। শিঘ্রই তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। সুজানগর পৌর এলাকার চর ভবানীপুর গ্রামের দরিদ্র পরিবারের সন্তান সুজানগর পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর দুই ছাত্রী ১ আগষ্ট বিকেলে স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে চর ভবনীপুর মাষ্টার পাড়ার হযরত আলী, আল আমিন, শাহিন, মিঠুন, পাংকু ও সোহেল রানা নামের ছয় বখাটে যুবক অস্ত্রের মুখে ওই দুই স্কুল ছাত্রীকে জোরপূর্বক পাশ্ববর্তী নিকিরী পাড়ার একটি বাশ বাগানে নিয়ে যায়। সেখানে বখাটেরা জোরপূর্বক পালাক্রমে দুই ছাত্রীকে ধর্ষন করে এবং মোবাইলে তার ভিডিও চিত্র ধারন করে এবং ঘটনাটি কাউকে জানানো হলে ধর্ষনের ভিডিও চিত্র ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকী দেওয়া হয়। দুই ছাত্রী বিষয়টি ভয়ে গোপন রাখে।

ঘটনার কয়েক দিন পর ভিডিও চিত্র দেখিয়ে পুনরায় তাদের সাথে যাওয়ার প্রস্তাব দিলে তারা তা প্রত্যাখান করে। এরপর বখাটেরা ওই ভিডিও চিত্রটি ফেসবুকে আপলোড করলে মুহুর্তেই ছড়িয়ে পরে ভিডিওটি। বিষয়টি জানাজানি হলে ওই দুই ছাত্রীর অভিভাবকরা থানায় বখাটেদের বিরুদ্ধে মামলা করতে গেলে মামলা গ্রহন না করে তাদের ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

পরে রবিবার (২০ আগস্ট) বিকেলে পাবনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে চর ভবনীপুর মাষ্টার পাড়ার হযরত আলী, আল আমিন, শাহিন, মিঠুন, পাংকু ও সোহেল রানার নামে মামলা দায়ের করলে আদালতের ভিারপ্রাপ্ত বিচারক অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ইমরান হোসেন চৌধূরীর মামলাটি গ্রহন করে আসামীদেরকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন।