• আজ
  • মঙ্গলবার,
  • ২১শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
  • |
  • ৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ


Text_2

বিসিবির ক্রিকেট সরঞ্জাম পেল নারী ক্রিকেটাররা

প্রকাশ: ১৬ এপ্রি, ২০১৭ | রিপোর্ট করেছেন ক্রীড়া সংবাদদাতা

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সহযোগীতা পেল পাবনা সদর উপজেলার মাধপুর ডাঃ ইসমাইল হোসেন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের নারী ক্রিকেটাররা। শনিবার দুপুরে বিসিবি পরিচালক ও টুর্নামেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপন চৌধুরীর নের্তৃত্বে একটি প্রতিনিধি দল ক্ষুদে খেলোয়াড়দের ক্রিকেট সরঞ্জাম তুলে দেন। এ সময় বিসিবি পরিচালক সপ্তাহে তিনদিন প্রশিক্ষণের জন্য একজন প্রশিক্ষক নিয়োগের ঘোষণা দেন। উপস্থিত শিক্ষক শিক্ষার্থীরা ক্রিকেট বোর্ডের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে আগামীতে আরো ভালো খেলার প্রত্যয় ব্যক্ত করে।

উল্লেখ্য, বাল্যবিবাহ আর গ্রামীণ সংস্কারকে পেছনে ফেলে জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলার স্বপ্নে বিভোর পাবনার মাধপুর ডাঃ ইসমাইল হোসেন মেমোরিয়াল বালিকা বিদ্যালয়ের মেয়েদের নিয়ে বিগত কিছুদিন বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশ হলে তা বিসিবির নজরে আসে।

পাবনা শহর থেকে ১৫ কিলোমিটার দূরের গ্রাম মাধপুরে নারী শিক্ষা বিস্তারে ১৯৯৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় ডাঃ ইসমাইল হোসেন মেমোরিয়াল উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়। গ্রামীন সংস্কার আর বাল্যবিবাহের সাথে যুদ্ধ করে কদিন আগেও যে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ধরে রাখতেই হিমশিম খেতেন শিক্ষকরা, শিক্ষার্থীদের দৃঢ়তা আর প্রত্যয়ে তারাই এখন গাইছেন দিনবদলের গান। একঝাঁক কিশোরী ব্যাট বল নিয়ে সপ্তাহে দুদিন নিয়ম করে স্কুলমাঠে করছে অনুশীলন। গ্রামবাসীর উৎসাহে তাদের স্বপ্ন এখন জাতীয় দলে খেলার। ক্ষুদে নারী ক্রিকেটারদের এ সংগ্রামী অভিযাত্রার কথা জানতে পেরে সহযোগীতায় এগিয়ে এসেছে বিসিবি। ক্রিকেট বোর্ড পরিচালক সাইফুল ইসলাম স্বপন চৌধুরীর উদ্যোগে এই আত্মপ্রত্যয়ী মেয়েদের ক্রিকেট কোচ দেলোয়ার হোসেন প্রতি সপ্তাহে তিনদিন দেবেন প্রশিক্ষণ।

ক্রিকেট দলের খেলোয়ার বর্ষা জানায়, আমাদের স্কুলের শিক্ষার্থীরা দরিদ্র পরিবারের হওয়ায় আমাদের খেলার সামগ্রী পেতে অনেক কষ্ট হত। শিক্ষকরা চাঁদা তুলে আমাদের ব্যাট বল কিনে দিতেন। বিসিবি আমাদের দায়িত্ব নেয়ায় আমরা এখন জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন পূরণে একধাপ এগিয়ে গেলাম।

ক্ষুদে নারী ক্রিকেটারদের স্বপ্ন পূরণে বিসিবিকে পাশে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন ক্রীড়া শিক্ষক তুহিন হোসেন। গণমাধ্যম ও ক্রিকেট বোর্ডকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি বলেন, আমি এখনো বিশ^াস করতে পারছি না, আমাদের মেয়েরা ক্রিকেট বোর্ডের আওতায় এসেছে। নিশ্চয় আমাদের মেয়েদের জাতীয় দলে খেলার স্বপ্নও একদিন পূরণ হবে। সাকিব,তামিম আর মাশরাফিদের পাশে বিশ্বক্রিকেটে এখন পরিচিত নাম সালমা,জাহানারা,রোমানারা। মাধপুরের আত্মপ্রত্যয়ী এ কিশোরীদের স্বপ্নে ভর করে ক্রিকেট বিশ্বও একদিন দেখবে বাঙালী নারীর বিশ্ববিজয়ীরূপ , অন্তত সে বাজিই ধরছেন এখন এ গ্রামের মানুষ।