• আজ
  • শনিবার,
  • ২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং
  • |
  • ৮ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ
Text_2

বেড়ায় প্রতারক প্রেমিকের লিঙ্গ কর্তন : প্রেমিকা আটক

প্রকাশ: ২৯ মার্চ, ২০১৬ | রিপোর্ট করেছেন বেড়া প্রতিনিধি

পাবনার বেড়ায় এক প্রতারক লম্পট এর পুরুষাঙ্গ ব্লেড দিয়ে কেটে দিয়েছে এক স্বামী পরিত্যাক্তা মহিলা। ওই প্রতারক লম্পট বেড়া উপজেলার হাটুরিয়া- নাকালিয়া ইউনিয়নের চর সাড়াশিয়া গ্রামের ছালাম স্যান্ডাল এর ছেলে উজ্জল স্যান্ডাল (৪০)। সে এখন পাবনা সদর হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। এ ঘটনায় বেড়া মডেল থানা পুলিশ শিল্পী খাতুন নামের ওই মাহিলাকে আটক করেছে।

থানা সুত্রে জানা যায়, বেড়া উপজেলার চর সাড়াশিয়া গ্রামের ফকির প্রমানিকের মেয়ে শিল্পী খাতুনের বিয়ে হয় পাশের গ্রামের আমির হামজার সাথে। দুই বছর সংসার করার পর স্বামী আমির হামজা একটি ছেলে রেখে নিরুদ্ধেশ হয়। এর পর শিল্পী বাবার বাড়ীতে থেকে বিভিন্ন বাড়িতে ঝিয়ের কাজ করতো। এ সুবাদে উজ্জল স্যান্ডাল এর সাথে শিল্পীর পরিচয় হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে প্রেম ও দৈহিক সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘ দুই বছর ধরে চলে তাদের লীলাখেলা। এরই মধ্যে শিল্পী জানতে পারে উজ্জল বিয়ের কথা বলে এভাবে আরো মেয়ের সাথে সম্পর্ক গড়েছে। তাইতো সে উজ্জলকে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। কিন্তু উজ্জল বিভিন্ন তালবাহানা করতে থাকে। সোমবার রাতে লম্পট উজ্জল শিল্পী ঘরে ডুকে তাকে জোর পুর্বক ধর্ষন করলে শিল্পী ক্ষিপ্ত হয়ে বিছানার পাশে থাকা ব্লেড নিয়ে উজ্জলের পুরুষাঙ্গ কেটে দিলে সে দৌড়ে পালিয়ে যায়। শিল্পী ভয়ে পাশের বাড়িতে আশ্রয় নেয়। পরে উজ্জলের আত্মীয়স্বজনেরা  এসে তাকে মারপিট করে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ মঙ্গলবার দুপুর ১১টার সময় শিল্পীকে আটক করে থানা নিয়ে আসে। এব্যাপরে উজ্জলের চাচাতো ভাই  রবিউল বাদি হয়ে বেড়া মডেল থানায় মামলা করেন। আটক শিল্পী জানান, উজ্জল  একজন লম্পট প্রতারক। সে আমার মত আরো  মেয়ের সাথে প্রতারনা করেছে।

এ ব্যাপারে বেড়া মডেল থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ফিরোজ আহম্মেদ ঘটনার সত্যতা শিকার করেন।