• আজ
  • শুক্রবার,
  • ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ইং
  • |
  • ১০ই ফাল্গুন, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ


Text_2

পাবনার চরগড়গড়ীতে দিনব্যাপী পিঠা উৎসব

প্রকাশ: ৭ ফেব্রু, ২০১৯ | রিপোর্ট করেছেন নিজস্ব প্রতিবেদক

বিপুল উৎসবমুখর পরিবেশে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার চরগড়গড়ি ওসাকা কমপ্লেক্স এর চরনিকেতন কাব্যমঞ্চ প্রাঙ্গণে দিনব্যাপি পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। পল্লীকর্ম সহায়ক ফাউন্ডেশনের সহায়তায় বেসরকারি উন্নয়ন সংগঠন ওসাকা এই পিঠা উৎসবের আয়োজন করে।

বৃহস্পতিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল সাড়ে ৯টায় চর নিকেতন কাব্যমঞ্চে প্রধান অতিথি হিসেবে এই পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন পাবনার জেলা প্রশাসক জসিমউদ্দিন।

ওসাকার নির্বাহী পরিচালক বিশিষ্ট কবি, গবেষক ও প্রাবন্ধিক মজিদ মাহমুদের সভাপতিত্ব উৎসবে বিশেষ অতিথি ছিলেন আন্তর্জাতিক খ্যাতি সম্পন্ন চলচ্চিত্র নির্মাতা ফ্রান্স প্রবাসী আমিরুল আরহাম, পাবনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) শাফিউল ইসলাম, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আহাম্মদ হোসেন ভূঁইয়া, ঈশ্বরদীর সহকারি কমিশনার (ভুমি) মমতাজ মহল, পাবনা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি আখতারুজ্জামান আখতার।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা ও গীতিকার আব্দুল খালেক বিশ্বাস, মুক্তিযোদ্ধা শফিউর রহমান, ওসাকার উপ-পরিচালক সাংস্কৃতিককর্মী মাজহারুল ইসলাম, ওসাকার কর্মকর্তা সাইফুল ইসলাম প্রমুখ।

পিঠা উৎসবে ২৫টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ অর্ধশতাধিক সংগঠন অংশ নেন। পিঠা উৎসব চলাকালে চরনিকেতন কাব্যমঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবশেন করেবিভিন্ন সংগঠন। এসময় পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবৃত্তি সংগঠন কন্ঠস্বর এর সদস্যরা কবি মজিদ মাহমুদের কাব্যগ্রন্থ থেকে সমবেত আবৃত্তির অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক তাঁর বক্তব্যে
ওসাকার এই পিঠা উৎসবের আয়োজনের প্রশংসা করে বলেন, এটি বাঙালীর শেকরের উদ্যোগ। তিনি বলেন, এই পিঠা উৎসবেরমাধ্যমে প্রতিনিয়ত নগরায়নের প্রতিযোগিতায় গ্রাম বাংলার হারিয়ে যাওয়া হাজার বছরের সংস্কৃতি নতুন প্রজন্মের কাছে পরিচিতি লাভ করবে। পাশাপাশি আমাদের গ্রাম বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য পুণরুজ্জীবিত হবে।